চসিকের রাজস্ব বিভাগে দুদকের অভিযান

চট্টগ্রাম মেইল : ট্রেড লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছু অনিয়মের অভিযোগ তদন্তে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন দফতরে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্ণীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের উপ পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দনের নের্তৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

আজ বুধবার সকালে দুদকের অভিযানিক টিম প্রথমে চসিকের নগর ভবনের রাজস্ব বিভাগে এবং দুপুর ১২টার পরে নিউ মার্কেট এলাকায় চসিকের রাজস্ব সার্কেল ৪ এ অভিযান শুরু করে। অভিযান চলে দুপুর ২ টা পর্যন্ত।

দুদক সূত্রে জানা যায়, সাধারণ ব্যবসায়িদের কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্স প্রদানে অতিরিক্ত টাকা আদায়, ট্রেড লাইসেন্সের সংকট সৃষ্টি করে গ্রাহক হয়রানি, গ্রাহকদের কাছ থেকে আদায়কৃত অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ঠিকমত প্রদান না করাসহ বেশ কিছু অনিয়মের অভিযোগ নিয়েই চসিকের বিভিন্ন রাজস্ব সার্কেলে দুদক টিম অভিযানে নামে।

অভিযানে নের্তৃত্বদানকারি দুদকের উপ পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন বলেন, আমাদের কাছে বেশ কয়েকজন গ্রাহক ট্রেড লাইসেন্স প্রদানে নানা অনিয়মের অভিযোগ করেন। এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগে অনুসন্ধান করা হয়।

অনুসন্ধানে ট্রেড লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে সুনির্দ্দিষ্ট রেজিস্টার মেনটেইন না করা, ট্রেড লাইসেন্সের সংকট সৃষ্টি করে গ্রাহকদের হয়রানি ও অতিরিক্ত অর্থ আদায় এবং গ্রাহকদের কাছ থেকে আদায়কৃত অর্থ সরকারি কোষাগাড়ে সঠিকভাবে জমা না করাসহ বেশ খিছু অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

তিনি বলেন, আমরা তথ্য উপাত্ত সব সংগ্রহ করেছি,অভিযোগকারীদের বক্তব্যসহ উদ্ধতন কর্মকর্তাদের কাছে তা লিখিত আকারে প্রতিবেদন জমা দেব। পরবর্তীতে নির্দেশনা পেলে এসব অভিযোগের অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্দ্যেগ নেব।

বিএম/রাজীব সেন…