ঠাকুরগাঁওয়ে স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা

ঠাকুরগাঁওয়ে স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়ন বিষয়ক দিনব্যাপী এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁও সার্কিট হাউজে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের সহযোগিতায় কর্মশালার উদ্বোধন করেন আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন।

কর্মশালায় উপস্থিতি

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কেএম কামরুজ্জামান সেলিমের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন, প্রধান অতিথি আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন, বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মোহা: মনিরুজ্জামান (পিপিএম), জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুহ: সাদেক কুরাইশী, কর্মশালার সমন্বয়কারী শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নায়েম উপ-পরিচালক ড. মো: আরিজুল ইসলাম খাঁন প্রমুখ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা: আবু মো: খয়রুল কবীর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আসাদ মো: মাহফুজুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আফতাব হোসেন, এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী কান্তেশ্বর বর্মন, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আশিকুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অরুনাংশু দত্ত টিটো, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মোস্তাক আলম টুলু, রানীশংকৈল উপজেলা চেয়ারম্যান শাহরিয়া আযম মুন্না, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা চেয়ারম্যান আলি আসলাম জুয়েল, পীরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলামসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিনুল ইসলাম। কর্মশালায় সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, পুলিশ, শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্থ্য,পরিবেশ, সড়ক ও জনপদ, মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মী, খ্যতনামা ব্যক্তি, ধর্মীয় নেতা, ব্যবসায়ি, নারী উদ্যোক্তা, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী সহ মোট ১শ জন অংশ্রগহন করেন। কর্মশালায় স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়ন বিষয়ক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয় ও বিভিন্ন সুপারিশ মালা গ্রহন করা হয়।

কর্মশালায় ১০ জন করে গ্রুপে ভাগ করে ১শ জন অংশগ্রহনকারী তাদের মতামত তুলে ধরেন। এখানে দারিদ্র বিলোপ, ক্ষুধামুক্ত, মানসম্মত শিক্ষা, নারী পুরুষেল সমতা, নিরাপদ পানি স্যানিটেশন, সাশ্রয়ী ও দুষণমুক্ত জ্বালানি, যথোচিত কর্ম ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, স্বাস্থ্য ও কল্যান, আধুনিক কৃষি, মানসম্মত শিক্ষা, উন্নত স্বাস্থ্যসেবা, আধুনিক যোগাযোগ, সকলের জন্য ইন্টারনেট, শক্ষিা ও বাণিজ্য প্রযুক্তি, দোড় গোড়ায় সেবা, জ্বালানি নিরাপত্তা ও পরিবেশ বিষয়ে আলোচনা করেণ। প্রতিটি গ্রুপ ১০ মিনিট করে একটি প্রতিবেদন তৈরী করে তা পরিবেশন করে।

বিএম/গৌতম/রনী