নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষনার দাবিতে রবিবার সিইউজের সামবেশ

সংবাদপত্র, সংবাদসংস্থাসহ ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মিদের ওয়েজ বোর্ডের আওতায় এনে অবিলম্বে নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষনা ও কার্যকর করাসহ পাঁচদফা দাবিতে রবিবার চট্টগ্রামে সাংবাদিকের সমাবেশের ডাক দিয়েছে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন-সিইউজে।

বৃহস্পতিবার রাতে সিইউজের নির্বাহী কমিটির জরুরী সভায় এই কর্মসুচি ঘোষনা করা হয়।

সিইউজের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সিইউজের পক্ষ থেকে ৫দফা দাবি উত্থাপন করে অবিলম্বে সেসব দাবি বাস্তবায়নের দাবি জানানো হয়। এসব দাবির মধ্যে রয়েছে, সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন নোয়াবের পক্ষ থেকে ৮ম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের যে দাবি করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে সরকারি ভাবে তদন্ত কমিটি গঠন, যেসব সংবাদপত্র ৮ম ওয়েজ বোর্ড পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করেনি সেসব গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের বকেয়াসহ সকল পাওনা পরিশোধ, ডিএফপি দেয়া পত্রিকার সার্কূলেশনসহ আয়-ব্যায় হিসাবের সাথে সংবাদপত্র মালিকদের আয়কর বিভাগে প্রদত্ত হিসাব মিলিয়ে দেখতে সরকারি পর্যায়ে নিরীক্ষা কমিটি গঠন করে সঠিত তথ্য নিরুপন, গণমাধ্যমে কর্মরত সকল সাংবাদিক-কর্মচারীদের জন্য সরকারি ছুটি বাস্তবায়ন, শ্রম আইন অনুযায়ী প্রভিডেন্ট ফান্ড গঠন, নিয়োগপত্র প্রদানসহ ওয়েজ বোর্ড অনুযায়ী সকল প্রান্তিক সুবিধা নিশ্চিত করার দাবি জানানো হয়।

এসময় সিইউজের নির্বাহী কমিটির সভায় অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী, সিনিয়র সহসভাপতি মাঈনুদ্দিন দুলাল, সহসভাপতি মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, অর্থ সম্পদক কাশেম শাহ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কুতুব উদ্দিন,সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম ইফতেখারুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য উত্তম সেন গুপ্ত, এম এম ইব্রাহীম, বিশুরায় চৌধুরী প্রমুখ।

সভায় নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন নোয়াব যে বিবৃতি দিয়েছে সে বিবৃতি প্রত্যাখান করে এটিকে মিথ্যা, বানোয়াট, অবাস্তব হিসাবে অভিহিত করা হয়।

বিএম/এমআর