সীতাকুণ্ডে শিশু নিয়ে পালানোর সময় রোহিঙ্গা নারী আটক

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি : শিশু নিয়ে পালানোর সময় সীতাকুণ্ডে রেহেনা বেগম (৪৫) নামের এক নারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

আজ শনিবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার সলিমপুরের বাংলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, আরফাতুল ইসলাম সিফাত (৫) নামের শিশুটি ঘরের বাহিরে খেলা করার সময় এক মহিলা সিফাতকে কুলে তুলে মুখে অজ্ঞান নাশক ঔষধ লাগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় দোকানদার বিষয়টি দেখে ফেলে এবং মহিলাটি ধাওয়া করলে শিশুটিকে ফেলে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে এ নারী। এসময় লোকজন তাকে ধাওয়া করে আটক করে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

সিফাত নোয়াখালীর সুবর্ণচর থানার জাহাজমারা গ্রামের সজল ইসলাম ও পারুল আক্তারের পুত্র। তারা দীর্ঘদিন সলিমপুরের বাংলাবাজারের পুরাতন দাইয়া বাড়ির আলমগীরের ভাড়া বাসায় বাস করছেন।

আটককৃত রেহানার স্বামীর নাম হারুন, পিতার নাম ইউনুচ মিয়া, সাং আলীপুর বলে জানায়। তবে সে বিস্তারিত ঠিকানা বলেনি। ধারণা করা হচ্ছে সে রোহিঙ্গা নারী।

এ ব্যাপারে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির সার্জেন্ট রফিক আহমেদ মজুমদার বাংলাদেশ মেইলকে বলেন, একটি শিশু নিয়ে পালানোর সময় মহিলাটিকে স্থানীয় এলাকাবাসী আটক করে। মহিলাটি তার পুরো ঠিকানা বলছে না।

ধারনা করা হচ্ছে সে রোহিঙ্গা নারী হবে। আমরা শিশুটিকে পরিবারের কাছে দিয়েছি এবং মহিলাটিকে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় হস্তান্তর করেছি।

বিএম/কেআইডি/আরএস