প্রবাসী ছেলের লাশ নিয়ে ফেরার পথে বাবাও লাশ হলেন

সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদিফেরত ছেলের লাশ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বাবা।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জ উপজেলার সঈদপুর বাজারের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মো. আলী আহমদ (৬০) মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের জালুয়াবাদ গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কিছুদিন আগে সৌদি আরবে মারা যান মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের জালুয়াবাদ গ্রামের বাসিন্দা মো. আলী আহমদের ছেলে জজ মিয়া।

শুক্রবার দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক থেকে ছেলে জজ মিয়ার লাশ গ্রহণ করেন বাবা মো. আলী আহমদসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা।

বিমানবন্দরের কার্যক্রম শেষে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সযোগে (ঢাকা মেট্রো ছ ৭১-১১৪২) বাড়ি ফেরার পথে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জ উপজেলার সঈদপুর বাজার আঁড়িখাল ব্রিজের কাছে পৌঁছামাত্রই বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যানের (ঢাকা মেট্রো ন-১৬-৪৯৩১) সঙ্গে অ্যাম্বুলেন্সটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অ্যাম্বুলেন্সটি নিকটবর্তী প্রায় ২৫০ ফুট গভীর খাদে পড়ে যায়।

এ সময় ঘটনাস্থলেই মো. আলী আহমদ (৬০) নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৫ জন।

খবর পেয়ে শেরপুর হাইওয়ে থানার (ওসি) মোহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ও ওসমানীনগরের একদল দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহমদ আলীর লাশ উদ্ধার করে।

শেরপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিদেশফেরত ছেলের লাশ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে সৈয়দপুর বাজারের কাছে অ্যাম্বুলেন্স ও পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে আলী আহমদ নিহত হন। খবর পেয়ে অ্যাম্বুলেন্স, পিকআপ ভ্যান ও লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিএম/এমআর