হাড় না কেটে হার্টের সফল অস্ত্রোপচার

বুকের হাড় না কেটে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের কোনো সরকারি হাসপাতালে সফলভাবে হার্টের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

রোববার জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে (এনআইসিভিডি) ডা. আশরাফুল হক সিয়ামের নেতৃত্বে স্বাস্থ্যখাতের আধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতি মিনিমাল ইনভেসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি (এমআইসিএস) করা হয়।

ডা.সিয়াম ও অন্য চিকিৎসকরা

মিনিমাল ইনভেসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি (এমআইসিএস) আমেরিকাসহ বিশ্বের অনেক দেশে এ পদ্ধতি এরই মধ্যে সাফল্য লাভ করেছে। ক্রমেই এ পদ্ধতিতে চিকিৎসা গ্রহণকারীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

ডা. আশ্রাফুল হক সিয়াম বলেন, এই পদ্ধতিতে বুক না কেটে ছোট ছোট ছিদ্রের মাধ্যমে হার্টের অস্ত্রোপচার করা হয়। এতে রোগীর আতঙ্ক, ঝুঁকি, ব্যথা ও সময় কমের পাশাপাশি খরচও কম হয়। এছাড়াও অস্ত্রোপচারের পরদিনই রোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিতে পারেন।

‘‘সব মিলিয়ে এটি একটি আধুনিক ও ঝুঁকিমুক্ত পদ্ধতি।’’

বর্তমানে প্রচলিত ‘কনভেনশনাল হার্ট সার্জারি’ পদ্ধতিতে বুকের মাঝখান বরাবর কেটে হার্টের অস্ত্রোপচার করা হয়। কিন্তু মিনিমাল ইনভেসিভ পদ্ধতিতে বুক না কেটে ছোট ছোট ছিদ্রের মাধ্যমে হার্টের অস্ত্রোপচার করা হয়।

ডা. আশরাফুল হক সিয়াম ও অন্য চিকিৎসকরা
এর আগে ২০১৫ সালে বাংলাদেশে এ পদ্ধতিতে পরীক্ষামূলকভাবে ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হসপিটাল এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটে এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে কয়েকজন হৃদরোগীর অস্ত্রোপচার হয়েছে। তবে কোনো সরকারি হাসপাতালে এই প্রথম এ ধরনের অস্ত্রোপচার হলো।

বিএম/এমআর