আমার মনেই হয়নি যে, এটা একটা টেস্ট হচ্ছে : পাপন

চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে অনেকটাই হারের পথে বাংলাদেশ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে দলের এমন পারফরম্যান্সের অসন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। বিশেষ করে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন লিটন, মুশফিক, সাকিব, মাহমুদউল্লাহ, মুমিনুলের পারফরম্যান্স নিয়ে।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিংয়েই বেশি হতাশ করেছে বাংলাদেশের। দুই ইনিংস মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ফিফটি করেছে মাত্র একজন ব্যাটসম্যান। সেটিও এসেছে প্রথম ইনিংসে। অন্যদিকে এ টেস্টে তো প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন আফগানিস্তান ব্যাটসম্যান রহমত শাহ। সেঞ্চুরির কাছে গিয়েও পাওয়া হয় আসঘর আফগান, ইবরাহিম জাদরানের।

তাদের তুলনায় বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা নিরাশই করেছে। চট্টগ্রাম টেস্ট ইতোমধ্যে হাত থেকে ফসকে গেছে বাংলাদেশের। দলের এমন পারফরম্যান্সে চটেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। তিনি তো সরাসরি বলেই দিয়েছেন এখন কী ওদের টেস্ট ক্রিকেট শেখাতে হবে নাকি।

“পারফরম্যান্সের কথা যদি বলেন তাহলে আমি অবশ্যই বলবো, আফগানিস্তান অনেক এগিয়ে। কারণ তারা টেস্টের মতো করে ব্যাট করেছে। তাদের একজন সেঞ্চুরি করেছে, অন্যরা আশি নব্বই করে রান করেছে। আমাদের অন্য সব বাদ দিলাম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদরা যদি পঞ্চাশও করতে না পারে তাহলে আমাদের ওই ম্যাচ জেতার কোনো সম্ভাবনা নাই। ব্যাটসম্যানদের দেখে আমার মনেই হয়নি যে, এটা একটা টেস্ট হচ্ছে।।”

তিনি আরও যোগ করেন, “প্রথম ইনিংস যদি আপনি দেখেন, সেট হয়ে যাওয়ার পর লিটন দাস যে শটটা খেললো, মুমিনুল পঞ্চাশ করার কই একশ দেড়শো করবে, সে হলো টেস্ট স্পেশালিস্ট, সে যে শটটা খেললো। রিয়াদ যে শটটা খেললো তাকে টেস্ট খেলা বলে না। ওদেরকে এখন কি বুঝাতে হবে, টেস্ট কিভাবে খেলতে হয়! ওরা যদি ৩৭০ রান করে তাহলে বাংলাদেশ যে দল তাতে আমাদের ৫০০ রান করা উচিৎ। এটা মোটামুটি ব্যাটিং উইকেট ছিল, এখানে না পারার কোনো কথা না।”

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে জিততে হলে বাংলাদেশের আরও প্রয়োজন ২৬২ রান, হাতে রয়েছে চার উইকেট। চতুর্থ দিন শেষে অপরাজিত রয়েছেন সাকিব ও সৌম্য।

বিএম/এমআর