তারেক রহমানের নির্দেশে
দল থেকে বহিষ্কার হলেন নগর মহিলা দলের সভানেত্রী মনোয়ারা বেগম মনি

বাংলাদেশ মেইল | বিশেষ প্রতিবেদন :  সনাতন ধর্মালম্বীদের একটি অনুষ্ঠানে মেয়র নাসিরকে তোষন করে বক্তব্য প্রদান করায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের চট্টগ্রাম নগর কমিটির সভানেত্রী মনোয়ারা বেগম মনিকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। তার পরিবর্তে ভারপ্রাপ্ত সভানেত্রী করা হয়েছে দলের সিনিয়র সহ-সভানেত্রী ফাতেমা বাদশাহকে। শনিবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা সুলতানা আহমেদ এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা সুলতানা আহমেদ বলেন, ” দলের মহানগরের দায়িত্বে থেকে এহেন কাণ্ডজ্ঞানহীন
বক্তব্য তৃনমুলের নেতাকর্মিদের আহত করেছে।
এর আগেও বহিস্কৃত নেত্রী একই ধরনের বক্তব্য প্রদান করেছেন, মেয়রকে তোষন করে। যেখানে দলের চেয়ারপার্সন মিথ্যা প্রহসনের মামলায় কারাবন্দি, হাজার হাজার নেতাকর্মী কারাগারে, লক্ষাধিক নেতা কর্মি মিথ্যা মামলার বোঝা টানছে। এমন পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগের মতো অগণতান্ত্রিক দলের মেয়রের প্রশংসা আমাদের সকল ত্যাগকে প্রশ্নবিদ্ধ করে। সব কিছু বিবেচনায় তাকে দল থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। ”

উল্লেখ্য, মনোয়ারা বেগম মনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) বাগমনিরাম, জামালখান ও লালখান বাজার ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর। গত শুক্রবার (৪ অক্টোবর) নগরীর লালখান বাজার এলাকায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে আয়োজিত বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে মনোয়ারা বেগম মনি চসিক মেয়র পদে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছিরকে আবারও নির্বাচিত করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান। আ জ ম নাছিরকে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ মেয়র আখ্যা দেবার পাশাপাশি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা দিদারুল আলম মাসুমের প্রশংসা করেন।

বক্তব্যের একটি অংশে তিনি বলেন , “নাছির যদি নির্বাচিত না হন তবে তিনি অন্য মেয়রের অধীনে কাউন্সিলর হতে চান না। ”

তার এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে নিজ দলের বাইরেও ব্যাপক প্রতিক্রিয়া ও হাস্যরসের সৃষ্টি হয়। পরে বিভিন্ন গণমাধ্যমেও সংবাদের শিরোনামে আসে মনির বক্তব্যটি।
দলের একটি সুত্র জানায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মনি’র পুরো বক্তব্যের ভিডিও রেকর্ড চেয়ে বার্তা পাঠান চট্টগ্রামের এক সাংবাদিকের কাছে। ঐ সাংবাদিক যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারন সম্পাদকের মাধ্যমে কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনির বেশ কিছু অনুষ্ঠানের ভিডিও ক্লিপ পৌছে দেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে। যেখানে একই মন্ঞ্চে মনি মেয়র আ জ ম নাসিরের প্রশংসাসূচক বক্তব্য রেখেছেন।
তাৎক্ষনিকভাবে তাকে বহিস্কারের নির্দেশ পৌছায় দলের নেতাদের কাছে। সুত্রটি নিশ্চিত করেছে দলের স্থায়ী কমিটি সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আমির খসরুর আস্থাভাজন হবার কারনে বিভিন্ন সময় একই ধরনের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কেন্দ্র থেকে চেপে যাওয়া হলেও এবার বিষয়টি সিরিয়াসলি নেয় দলের নীতি নির্ধারকরা ।
সুত্র বলছে, মহিলা দলের সভানেত্রির এমন বক্তব্য শুনে চট্টগ্রাম মহানগর ও বিভাগের শীর্ষ তিনজন নেতাকে টেলিফোনে তিরষ্কার করেছেন লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

ইতিপূর্বে নগর বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব ও মহিলা দলের ভেতর মনির দেওয়া বক্তব্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেলেও মহানগর বিএনপি – কিংবা মহিলা দলের কেন্দ্রে থেকে কোন ধরনের সতর্ক বার্তা পাননি কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি। এবিষয়ে জানতে দক্ষিণ জেলা মহিলা দলের এক নেত্রীকে ফোন দেয়া হলে তিনি জানান, ধারনা করা হচ্ছে দলের শীর্ষ পর্যায় থেকে হঠাৎ করেই নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যার কারনে শোকজ কিংবা কোন ধরনের সতর্ক বার্তা দেবার সুযোগই হয় নি।
তবে মনোয়ারা বেগম মনির পক্ষ নিয়ে আমির খসরু ব্লকের নাম প্রকাশে অনিশ্চুক এক বিএনপি নেতা বলেন, ‘ মনি দলের নিবেদিত প্রাণ নেত্রী। অনেক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন রাজপথে। কাউন্সিলর হিসেবে সহকর্মির প্রশংসা করা দোষের কিছু নয়। বহিস্কার করাটা কতটা সঠিক সিদ্ধান্ত সেটা সময়ই বলে দেবে।
তবে, বহিস্কারের মতো আকষ্মিক সিদ্ধান্তকে ঘিরে আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে দলের বিভিন্ন শিবিরে।