১২ই অক্টোবরের মতবিনিময় সভা সফল করুন -সুজন

চট্টগ্রাম নগরীর বন্দর ও পতেঙ্গা থানা এলাকার জনদুর্ভোগ, যানজট, দূর্ঘটনা, জলাবদ্ধতা এবং বিভিন্ন ধরনের নাগরিক সমস্যা নিরসনের লক্ষ্যে আগামী ১২ই অক্টোবর শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় সীম্যান্স হোস্টেলস্থ লিলি কমিউনিটি সেন্টারে ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিভিন্ন সেবা সংস্থা এবং সমাজের বিভিন্ন স্তরের জনসাধারনের সমন্বয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত মতবিনিময় সভা সফল করার লক্ষ্যে এক প্রস্তুতি সভা আজ ৯ই অক্টোবর বুধবার সকাল ১১টায় স্থানীয় লিলি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে জনাব সুজন বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগনের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করছে। সেই সাথে দেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্র তথা ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নানাবিধ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। সরকার বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ এবং বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে দেশকে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। সে লক্ষ্যে চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিভিন্ন সেবা সংস্থার মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। বিভিন্ন সেবা সংস্থার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে গিয়ে সাধারন জনসাধারনকে কিছুটা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। তাই সঠিক সময়ে উন্নয়ন প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন এবং জনদুর্ভোগ লাঘবে বিভিন্ন সেবা সংস্থার মধ্যে সমন্বয় থাকা একান্ত প্রয়োজন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জনগনের দল। জনগনের ভোটের ম্যান্ডেট নিয়ে এ দল এখন রাষ্ট্র ক্ষমতায়। তাই উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন জনদুর্ভোগ নিরসনের লক্ষ্যে আহুত মতবিনিময় সভা সফল করার মাধ্যমে দলের নেতা-কর্মীদের জনগনের পাশে গিয়ে দাড়াতে হবে। সে লক্ষ্যে আগামী ১২ই অক্টোবর শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় অনুষ্ঠিতব্য মতবিনিময় সভায় উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চসিক মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন, বিভিন্ন সেবা সংস্থার মধ্যে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এম. জহিরুল আলম দোভাষ ডলফিন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্র্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল জুলফিকার আজিজ, ওয়াসার এমডি প্রকৌশলী একেএম ফজলুল্লাহ, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রাম এর প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন, উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) সহ বিভিন্ন সেবা সংস্থার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। তিনি আরো বলেন, সভায় নেতৃবৃন্দ চলমান দূর্নীতি, মাদক এবং জুয়া বিরোধী অভিযানের সাথে একাতœতা প্রকাশ করেন এবং এ সমস্ত অভিযান আরো বেগবান করার জন্য আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রতি আহবান জানান। সভায় নেতৃবৃন্দ সম্প্রতি বুয়েটের ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার ঘটনায় গভীর নিন্দা ও শোক প্রকাশ করেন। নেতৃবৃন্দ উক্ত ঘটনাকে চলমান অভিযানকে বাঁধাগ্রস্ত করার কোন অপপ্রয়াস কিনা তা খুঁজে বের করার জন্য আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রতি বিনীত অনুরোধ জানান।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজী জহুর আহমদ কোম্পানী, কার্যনির্বাহী সদস্য নূরুল আলম, ইপিজেড থানা আওয়ামী লীগের আহবায়ক হাজী হারুনুর রশীদ, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ ইলিয়াছ, ৩৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী শফিউল আলম, ৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এম. হাসান মুরাদ, সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ হাসান, হাজী এস.এম আবু তাহের, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোরশেদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ কামরুল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক সাহেদ বশর, হাজী মোঃ হোসেন, হাজী মোঃ শাহনেওয়াজ প্রমূখ।