অবশেষে ঘরের মাঠে জিতে প্লে-অফে ভাইকিংস

বিএম স্পোর্টস : বিপিএল ষষ্ঠ আসরে ঘরের মাঠে টানা তিন হারের পর জয়ের দেখা পেয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। ঢাকা ডাইনামাইটসকে ১১ রানে হারিয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত করল চিটাগং ভাইকিংস।

দুপুরে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। আগের ম্যাচের মতো ভুল করেনি ওপেনাররা। দলকে দারুণ শুরু এনে দেন দুই ওপেনার ক্যামরন ডেলপোর্ট ও মোহাম্মদ শাহজাদ। ডেলপোর্ট কিছুটা ধীরগতিতে খেললেও আক্রমণাত্মক ছিলেন শাহজাদ। উড়তে থাকা শাহজাদকে ফেরান সুনীল নারাইন। ২১ রান করে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন তিনি।

ইয়াসির আলী ও ডেলপোর্ট মিলে গড়েন ৪৬ রানের জুটি। তাদের জুটি ভাঙেন নারাইন। ব্যক্তিগত ১৯ করে আউট হন ইয়াসির। তবে চিটাগংয়ের দৃশ্যপট বদলে যায় মুশফিক-ডেলপোর্ট জুটিতে। দুইজনেই বেশ দায়িত্ব নিয়ে ব্যাটিং করেন। ডেলপোর্ট-মুশফিকের জুটি দলকে বড় সংগ্রহের পথ দেখায়। ডেলপোর্ট তুলে নেন ফিফটি। দুইজনের ৭৯ রানের জুটি ভাঙে দলীয় ১৬৭ রানে। ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলে ২৪ বলে ৪৩ রান করে আউট হন মুশফিক।

তারপরের বলেই আউট হন ডেলপোর্ট (৭১)। ওভারের তৃতীয় বলে শানাকার উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিক করেন রাসেল। তবে শেষ বলে ছয় মেরে ভাইকিংসের দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৭৪। চিটাগং ভাইকিংসের দেওয়া লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় ঢাকা ডাইনামাইটস। দলীয় এক রানে রাহির বলে শাহজাদের হাতে ক্যাচ তুলে আউট হন নারাইন।

দলীয় ১৭ রানে রাহির বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন রনি তালুকদার। দলীয় ২৩ রানে অদ্ভুত আউটের শিকার হন মিজানুর রহমান। ২৩ রানে তিন উইকেট হারিয়ে দল যখন বিপদে তখন খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেন নুরুল হাসান ও অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুইজনেই বেশ দায়িত্ব নিয়েই ব্যাটিং করেন। নুরুল একবার জীবন পেয়ে সেই সুযোগ কাজে লাগান। দুইজন মিলে গড়েন ৫০ রানের জুটি। নুরুল আউট হন ৩৩ করে। তার পরের বলে রান আউটের শিকার হন পোলার্ড।

ক্রিজে এসেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন রাসেল। ডেলপোর্টের বলে রাসেল বোল্ড হলেও, বলটি নো বল হওয়ায় জীবন পায় এই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান। দুইজনের জুটিতে জয়ের স্বপ্ন দেখছিল ঢাকা। তবে দলীয় ১৩৯ রানে রাসেলকে আউট করে ম্যাচে ফিরে চিটাগং। ১৮তম ওভারে শুভাগতর সহজ ক্যাচ মিস করেন মোসাদ্দেক। তবে পঞ্চম বলে নিজেই ক্যাচ নেন নাইম হাসান। শানাকার বলে চার মেরে ফিফটি তুলে নেন সাকিব। তবে তার পরের বলেই আউট হলে ম্যাচ নিজেদের দখলে নিয়ে যায় চিটাগং।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
চিটাগাং ভাইকিংস:- ১৭৪/৫ (মোহাম্মদ শাহজাদ ২১, ইয়াসির আলি ১৯, ক্যামেরন ডেলপোর্ট ৭১, মুশফিকুর রহিম ৪৩, সিকান্দার রাজা ৬*। আন্দ্রে রাসেল ৩/৩৮, সুনীল নারাইল ২/২০)

ঢাকা ডায়নামাইটস:- ১৬৩/৮ (মিজানুর ১১, সোহান ৩৩, সাকিব ৫৩, রাসেল ৩৯। ডেলপোর্ট ১/৩১, রাহি ৩/২৫, শানাকা ২/৩৪, নাইম ১/৩৭)

বিএম/রনী/রাজীব