কক্সবাজার বিমানবন্দরে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের মামলা

    ইসলাম মাহমুদ, কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার বিমানবন্দরে জেনারেটর কেনার নামে ৬০ লাখ ৫০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ঠিকাদার সহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক।

    দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চট্টগ্রাম অঞ্চলের উপ-পরিচালক মাহবুবুল আলম বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। রবিবার (৬ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ মামলা করা হয়।

    দুদকের চট্টগ্রাম-২ অঞ্চল সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের (সজেকা) এসি মো. গোলাম মোস্তফা জানান, মামলার অভিযুক্তরা হলেন– ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ কুর্মিটোলা ঢাকার সাবেক সহকারী পরিচালক (ই/এম) ভবেশ চন্দ্র সরকার, কক্সবাজার বিমানবন্দর ম্যানেজার দফতরের সাবেক উপ-সহকারী পরিচালক (ই/এম) শহীদুল ইসলাম মন্ডল, কক্সবাজার বিমানবন্দরের সাবেক ম্যানেজার মো. হাসান জহির, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ কুর্মিটোলা ঢাকার নির্বাহী প্রকৌশলী মিহির চাঁদ দে এবং তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. শহীদুল অফরোজ।

    কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার ফরিদ উদ্দিন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুদকের পক্ষ থেকে মামলার এজাহারের কপিটি নিয়ে তিনি কক্সবাজার আসেন। মামলাটি কক্সবাজার সদর থানায় নথিবদ্ধ হয়েছে। যার নম্বর-২৬। মামলাটি দুদক তদন্ত করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

    উল্লেখ্য, ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে কক্সবাজার বিমানবন্দরের জন্য ৩০০ কেভিএ একটি জেনারেটর কেনার জন্য দরপত্র আহ্বান করেন। উক্ত প্রকল্পের কাজ পান মেসার্স ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেডার্স নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রোপ্রাইটর মো. শাহাবুদ্দিন ও কক্সবাজার বিমানবন্দরের সাবেক ব্যবস্থাপক মো. হাসান জহির মিলে পরস্পর যোগসাজশ করে দুই দফায় ৬০ লাখ ৫০ হাজার টাকা অবৈধভাবে আত্মসাৎ করেন। ওই বিষয়টি ব্যাপক খোঁজখবর নিয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

    বিএম/রাজীব..