আইএইচটি এন্ড ম্যাটসে্‌ বিএসসি কোর্স চালু করার আহবান মেয়রের

    চট্টগ্রাম মেইল : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন বলেন চসিক চিকিৎসকদের কর্মস্থলে অনুপস্থিতির এই প্রবণতা কোনো মতে গ্রহনযোগ্য নয়। এই ধরনের অনুপস্থিতি চিকিৎসক সমাজের উপর সাধারণ মানুষে বিরক্তির কারণ।

    নগরবাসীর স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন চট্টগ্রাম নগরে চসিক মাতৃসদন হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল, প্রতিটি ওয়ার্ডে নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র, হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র ও জাকির হোসেন হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ পরিচালনা করছে।

    এই প্রসংগে মেয়র বলেন নগরবাসীকে স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া আমাদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। মানুষের সেবা দেয়ার মতো মহৎ কাজ আর হতে পারে। কাংখিত সেই সেবা নগরবাসী পাবে, এটাই মেয়রের প্রত্যাশা রাখে।

    ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি এন্ড ম্যাটস-এ (আইএইচটি এন্ড ম্যাটস) বিএসসি ম্যাটস্ কোর্স এবং মিডওয়াইফারী ইনষ্টিটিউটে ডিপ্লোমা কোর্স চালু করনের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য সিটি মেয়র সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশ দেন।

    আজ সকালে সিটি কর্পোরেশন মিলনায়তনে চসিক পরিচালিত স্ব্স্থ্যা বিভাগের সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সংশ্লিষ্টদের তিনি এ নির্দেশনা দেন।

    চসিক শিক্ষা স্বাস্থ্য স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা ও চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার সেলিম আকতার চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।

    অনুষ্ঠানে চসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার মোহাম্মদ আলী,চসিক স্বাস্থ্য বিভাগের মাধ্যমে ২০১৮ সনের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে পাওয়ার পয়েন্টে উপস্থাপন করেন।

    গভায় সিটি মেয়র আরো বলেন, রোগীদের মায়া-মমতা দিয়ে চিকিৎসা সেবা দিন। আমাদের দেশের ডাক্তারা রোগীদের কম সময় দেয় বলে বদনাম আছে। সেবা দিয়ে এই বদনাম ঘোচানোর আহবান জানান মেয়র। সভায় তিনি চসিক জনবল কাঠামোসহ বিবিধ বিষয় নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করেন।

    উল্লেখ্য চসিক চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র ও হাসপাতাল সমূহে ২০১৮ সনে প্রায় লক্ষাধিক রোগীকে চিকিৎসা সেবা করেছে। সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. প্রীতি বড়–য়াসহ অনুষ্ঠানে ডাক্তার, মেডিকেল ইনচার্জ, নার্স, মিডওয়াইফ, ফার্মাসিস্ট, স্বাস্থ্য সহকারি, স্বাস্থ্য পরিদর্শক, ইপিআই টেকনিশিয়ান উপস্থিত ছিলেন।

    বিএম/রাজীব…