খাগড়াছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ২

    বিএম ডেস্ক : খাগড়াছড়িতে আবাসিক হোটেলে র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান চালিয়ে দু’টি বিদেশি পিস্তল (আমেরিকার তৈরি), একটি দেশিয় অস্ত্র (এলজি), ১০ রাউন্ড পিস্তলের এ্যামুনেশন এবং ১ রাউন্ড কার্তুজসহ ২ জন উপজাতি সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা হয়।

    বধুবার (৬ মার্চ) সাড়ে আড়াইটায় খাগড়াছড়ি শহরের র‌্যাব-৭-এর মেজর মাসুদ পারভেজের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও পুলিশ যৌথভাবে আবাসিক হোটেল ‘ফোর স্টারে’ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

    এসময় তাদের কাছ থেকে দু’টি বিদেশি পিস্তল (আমেরিকার তৈরি), একটি দেশিয় অস্ত্র (এলজি), ১০ রাউন্ড পিস্তলের এ্যামুনেশন এবং ১ রাউন্ড কার্তুজসহ ২ জন উপজাতি সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা হয়।

    আটককৃতরা হলো- খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা সদর থানার দীঘিনালা গ্রামের মৃত ধুইয়ামহোন চাকমার পুত্র রনজয় চাকমা (৩৫) এবং একই এলাকার রায়মোহন ত্রিপুরার পুত্র দনঞ্জয় ত্রিপুরা (৩৬)।

    ধারণা করা যায় যে, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ব্যাপক নাশকতার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনগুলো অস্ত্র সংগ্রহে নেমেছে। এরই ধারাবাহিকতায় উল্লেখিত ফোর স্টার হোটেলে তারা অস্ত্রের কেনাবেচা করছিলো বলে প্রতীয়মান হয়।

    উল্লেখ্য, পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার এবং সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর এরুপ অভিযান চলমান থাকবে।

    র‌্যাবের এক কর্মকর্তা জানান, আটককৃতরা দীর্ঘ দিন ধরে অস্ত্র ব্যবসার সাথে জড়িত। এর আগেও চক্রটিকে আটকের চেষ্টা করলে কৌশলে পালিয়ে যায়। তবে এবার ছদ্মবেশে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করতে সক্ষম হয়।

    খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহাদাত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযানে অস্ত্রসহ ২ ব্যবসায়ী আটকের খবর পেয়েছি। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের এখনো থানায় হস্থান্তর করা হয়নি।

    বিএম/রনী/রাজীব