ফিল্মফেয়ারে সেরা ছবি:রাজি;সেরা অভিনেতা-অভিনেত্রী:রণবীর কাপুর-আলিয়া ভাট

বিনোদন ডেস্ক : নামী তারকা থাকলেই যে ছবি ভাল হবে না, তা আবার প্রমাণ করে দিন ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসের মঞ্চ। ফের বোঝা গেল, কম বাজেটের ছবি দিয়েই বক্স অফিস মাত করা যেতে পারে। পাওয়া যেতে পারে সমালোচকদের প্রশংসাও। এবছর অনুষ্ঠানে সেরা ছবির পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে মেঘনা গুলজারের ‘রাজি’। সেরা ক্রিটিক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে ‘অন্ধা ধুন’। দুটো ছবিরই বাজেট বেশ কম। প্রথমটি ৩৫ থেকে ৪০ কোটি টাকা, আর দ্বিতীয় ছবিটি ৩২ কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি হয়েছে। কিন্তু দু’টি ছবিই ব্যবসা করেছে ১০০ কোটির অনেক বেশি। এছাড়া ‘স্ত্রী’, ‘বধাই হো’-র মতো ছবিও রয়েছে পুরস্কার প্রাপকের তালিকায়।

অভিনেত্রী আলিয়া ভাট, নীনা গুপ্তা, সারা আলি খান, সুরেখা সিকরির ভাঁড়ারে এসেছে একটি করে পুরস্কার। অভিনেতাদের মধ্যে পুরস্কার জিতেছেন রণবীর কাপুর, রণবীর সিং, ঈশান খট্টর, ভিকি কৌশল ও গিরিরাজ রাও। একনজরে সেরা অভিনেতা, অভিনেত্রীদের তালিকা-

সেরা ছবি: রাজি
সেরা পরিচালক: মেঘনা গুলজার (রাজি)
সেরা অভিনেতা: রণবীর কাপুর (সঞ্জু)
সেরা অভিনেত্রী: আলিয়া ভাট (রাজি)

সেরা ছবি (ক্রিটিক): অন্ধা ধুন
সেরা অভিনেতা (ক্রিটিক): রণবীর সিং (পদ্মাবত)
সেরা অভিনেত্রী (ক্রিটিক): নীনা গুপ্তা (বধাই হো)

সেরা পরিচালক (ডেবিউ): অমর কৌশিক (স্ত্রী)
সেরা অভিনেতা (ডেবিউ): ঈশান খট্টর (বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস)
সেরা অভিনেত্রী (ডেবিউ): সারা আলি খান (কেদারনাথ)

সেরা সহ-অভিনেতা হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন দুই অভিনেতা- ‘বধাই হো’ ছবির জন্য গিরিরাজ রাও ও ‘সঞ্জু’ ছবির জন্য ভিকি কৌশল। সেরা সহ-অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন ‘বধাই হো’ ছবির জন্য সুরেখা সিকরি। সেরা সংলাপের পুরস্কারও গিয়েছে ‘বাধাই হো’-এর ঝুলিতে। পুরস্কার পেয়েছেন অক্ষত ঘিদিয়াল। সেরা অরিজিনাল স্ক্রিপ্টের জন্য পুরস্কার পেয়েছেন অনুভব সিনহা (মুলক)। শর্ট ফিল্মের মধ্যে সেরা অভিনেতা নির্বাচিত হয়েছেন হুসেন দালাল (শেমলেস) এবং সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন কৃতি কুলহারি (মায়া)। সেরা শর্টফিল্ম ফিকশন- ‘রোগান জোশ’, সেরা শর্টফিল্ম নন-ফিকশন- ‘দ্য সকার সিটি’।

সেরা মিউজিক অ্যালবাম নির্বাচিত হয়েছে ‘পদ্মাবত’। সেরা গায়কের পুরস্কার গিয়েছে অরিজিৎ সিংয়ের ‘অ্যায় ওয়তন- রাজি’র পকেটে। সেরা গায়িকার পুরস্কার পেয়েছেন ‘পদ্মাবত’ ছবির ‘ঘুমর’ গানের জন্য শ্রেয়া ঘোষাল। সেরা গীতিকার গুলজার, ‘অ্যায় ওয়তন- রাজি’র জন্য। সেরা লিরিক্সের জন্য যে ছবিটি পুরস্কার জিতেছে, সেটি হল ‘অন্ধা ধুন’। ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোরের জন্যও এই ছবি পুরস্কার পেয়েছে। সেরা সাউন্ড ডিজাইনের জন্য পুরস্কৃত হয়েছে ‘টুম্বাদ’। সেরা সিনেমাটোগ্রাফার হয়েছেন পঙ্কজ কুমার (টুম্বাদ)। এছাড়া সেরা এডিটিংয়ের জন্যও পুরস্কৃত হয়েছে ছবিটি।

বিএম/রনী/রাজীব