শিগগিরই চালু হচ্ছে রেলের অ্যাপস

বিএম ডেস্ক : শিগগিরই চালু হচ্ছে রেলওয়ে অ্যাপস। এর মাধ্যমে যাত্রীরা পছন্দের সিট, টিকিটের মূল্য পরিশোধ এবং ট্রেনের বর্তমান অবস্থান জানতে পারবেন। এছাড়া যাত্রা শেষে সেবার মান সম্পর্কেও রেটিং দিতে পারবেন যাত্রীরা। এছাড়া ট্রেনের লিস্টগুলোর মাধ্যমে দেখা যাবে কোন ট্রেন কোথায় যাবে। ভিসা, মাস্টারকার্ড, বিকাশ জাতীয় ওয়ালেটের মাধ্যমে টিকিটের মূল্য পরিশোধ করা যাবে।

রবিবার (২৪ মার্চ) দুপুরে রেল ভবনে আয়োজিত আলোচনা সভায় রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, রেলওয়ে টিকিটিং সেবা সহজ করতে এবং যাত্রীদের ঝামেলাহীনভাবে সব সেবা দিতে এ অ্যাপস চালুর সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিগগিরই অ্যাপসটি উদ্বোধন করা হবে। অ্যাপসের কারিগরি কাজ শেষ হয়েছে; এখন চলছে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ। এরপরই এটি চালু করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, একসময় মানুষের যাতায়াতে শুধু রেল এবং নদীপথ ছিল। এখন সড়ক, নৌ, রেলপথ এবং আকাশ পথে যাতায়াতের ব্যবস্থা রয়েছে। যাতায়াতের এ চার পথকেই আরও যুগোপযোগী করতে সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে। একটি কথা প্রচলন রয়েছে, যে দেশের রেলব্যবস্থা যত উন্নত সে দেশ তত বেশি উন্নত। আমরা রেলের সেবা বাড়াতে নানা উদ্যোগ নিয়েছি। রেলের প্রতি মানুষের ব্যাপক আস্থা আনতে যা যা করা দরকার সবই করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, মানুষ জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে টিকিট সংগ্রহের ব্যবস্থাকে সব সাধুবাদ জানিয়েছে। প্রাথমিকভাবে আমরা দুটি ট্রেনে এ ব্যবস্থা চালু করেছিলাম। পরে সাধারণ মানুষের ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় সাতটি ট্রেনে এ সেবা চালু হয়।

সর্বশেষ এখন পর্যন্ত ১৬টি ট্রেনে ন্যাশনাল আইডি ছাড়া কাউকে টিকিট দেয়া হচ্ছে না। আগামীতে সব ট্রেনের টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থা চালু করা হবে। ঈদের আগেই এ ব্যবস্থা চালু হতে পারে।

অ্যাপস প্রস্তুতকারকরা জানান, যাত্রীরা অ্যাপসের মাধ্যমে টিকিট কাটার সময় সিট দেখতে পাবেন। কোন দূরত্বে টিকিটের মূল্য কত তাও অ্যাপসে দেখা যাবে। জানা যাবে ট্রেনের বর্তমান অবস্থানও। যাত্রা শেষে একজন যাত্রী সেবার মান সম্পর্কেও রেটিং দিতে পারবেন।

সভায় রেলে কর্মকর্তা ছাড়াও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সিএনএস-এর পক্ষে জিয়াউর রহমান, আনিন্দসেন গুপ্তসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিএম/রনী/রাজীব