কালুরঘাট সেতুর টোল বৃদ্ধির প্রতিবাদে বন্ধ টেম্পু সার্ভিস : ভোগান্তিতে যাত্রী

বোয়ালখালী প্রতিনিধি : কালুরঘাট সেতুর টোল বৃদ্ধির প্রতিবাদে পারাপার করছে না টেম্পু সার্ভিস। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছে বোয়ালখালী উপজেলার নগরে যাতায়াত কারীরা।

২৫ মার্চ সোমবার সকাল থেকে টেম্পু শ্রমিক ইউনিয়ন টোল বৃদ্ধির প্রতিবাদে এ কর্মসূচি পালন করছে।

ভোগান্তিতে পরা শিমুল জানান, সকাল ৯টায় নগরীর উদ্দেশ্য বাড়ি থেকে উপজেলা সদরের সিও অফিস এসে আটকা পরেছি। সড়কে টেম্পু চলাচল করছে না।

দুই একটা চলাচল করলেও তা উপজেলার পূর্ব কালুরঘাট কানুনগোপাড়া থেকে পূর্ব কালুরঘাট আমতল পর্যন্ত যাবে বলছে, সেতু পার হচ্ছে না বলে জানান নগর থেকে আসা হাবিবুর রহমান।তিনি বলেন, অনেক কস্টকরে সেতু পায়ে হেঁটে পার হয়েছি।

এদিকে টোল বাড়ানোর জেরে অটো রিকশা সার্ভিস (লোকাল) উপজেলা সদর থেকে রাস্তামাথা ৫০-৬০ টাকা দাবি করছে প্রতিজন যাত্রী থেকে। দীর্ঘদিন ধরে বাস সার্ভিস বন্ধ থাকায় এ দূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে।

চৈত্রের গরমে সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাড়িয়ে থেকেও পরিবহন মিলছে না জানিয়ে শ্রীচরণ বিশ্বাস বলেন, টেম্পু-অটো রিকশার কাছে বোয়ালখালীবাসী জিম্মি হয়ে পরেছে। এ পরিবহন সংকট নিরসনে জন প্রতিনিধিদের কোনো দায় নেই?

টেম্পু শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো.সেলিম জানান, কালুরঘাট সেতু পারাপারে ইজারাদার অযৌক্তিকভাবে টেম্পু থেকে ৪০ টাকা টোল নিচ্ছে। হঠাৎ করে ১০ টাকা বাড়ানোর প্রতিবাদে এ কর্মসূচি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, অবিলম্বে এ টোল আগের মতো করা না হলে টেম্পু সার্ভিস সেতু পারাপার করবে না।

কালুরঘাট সেতুর টোল আদায়কারী এএন ইজারাদার প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর আলম জানান, টেম্পু ৩০ থেকে ১০ বাড়িয়ে ৪০ টাকা ও অটোরিকশা ১৫ থেকে ৫ টাকা বাড়িয়ে ২০ টাকা করা হয়েছে।

বিএম/পুজন সেন/রাজীব সেন..