চুয়াডাঙ্গায় ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

বিএম ডেস্ক : চুয়াডাঙ্গায় পারিবারিক বিরোধের জেরে ছোট ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করেছে আপন বড় ভাই।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শাহাপুর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত সুজন আলীর (২৭) মরদেহ পুলিশ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনার দুই ঘণ্টা পর ঘাতক বড় ভাই আব্দুল কাদের সদর থানাতে এসে আত্মসমপর্ণ করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শাহাপুর গ্রামে আব্দুল হাকিমের দুই ছেলে আব্দুল হাকিম ও সুজন আলি মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে বড় ভাই হাকিম ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছোট ভাই সুজনকে কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সুজন।

স্থানীয় বাসিন্দা রবজেল মন্ডল ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জানান, বছর খানেক আগে জমি-জামা বিক্রি করে সৌদি আরবে যায় আব্দুল হাকিমের ছোট ছেলে সুজন। কিন্তু সৌদিতে যে চাকরির কথা বলে পাঠানো হয়েছিল সেই চাকরি না দিয়ে মরুভূমির একটি খামারে কাজ দেওয়া হয় সুজনকে। প্রবাসে কষ্টের চাকরি না করে গত ৭ মাস আগে দেশে ফিরে আসে সুজন। বিষয়টি নিয়ে সুজনের সাথে মাঝে মধ্যেই ঝগড়া বিবাদ সৃষ্টি হতো বড় ভাই আব্দুল কাদেরের।

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন খাঁন বিডি২৪লাইভকে জানান, বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার রাতে দুই ভাই বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে বড় ভাই ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছোট ভাই সুজনকে কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সুজন। অবস্থা বেগতিক দেখে পালিয়ে যায় ঘাতক বড় ভাই আব্দুল কাদের। এর দুই ঘণ্টা পর নিজেই সদর থানাতে এসে আত্মসমর্পণ করেন।

এ খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ রাত ১১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

বিএম/রনী/রাজীব