তারেককে ফেরাতে যুক্তরাজ্যের সহযোগিতা কামনা

বিএম ডেস্ক : আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, দেশের আদালত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানকে শাস্তি দিয়েছেন। তাই কারাগারেই তার জায়গা হওয়া উচিত। তিনি বলেন, দু’টি কারণে তাকে দেশে ফেরত পাঠাতে যুক্তরাজ্য সরকারের সহযোগিতা চেয়েছি। প্রথমত, তারেক রহমানকে রাজনৈতিক আশ্রয় দিলে অন্য আসামিদের মধ্যে তা দৃষ্টান্ত হিসেবে ব্যবহারের প্রবণতা বাড়বে। দ্বিতীয়ত, তারেক রহমান বাংলাদেশের আদালতে দণ্ডিত আসামি।

বুধবার ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসনের সঙ্গে বৈঠক শেষে গুলশানে নিজ বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য তারেক রহমানকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাতে চায়নি এই একটি কারণে দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ক্ষুন্ন হয়। তাই আমরা ইস্যুটি নিয়ে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে আলোচনা করেছি। তিনি এখন বিষয়টি নিয়ে তাদের সরকারের সঙ্গে আলোচনা করবেন এবং একটি ইতিবাচক ফলাফল আমরা পাবো বলে মনে করি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, গণহত্যা দিবসকে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা আমাদের দিয়েছেন। আমরা সে অনুসারে একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছি। তাই এ বিষয়টিও বৈঠককালে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের কাছে তুলে ধরেছি।

বঙ্গবন্ধু হত্যার আসামি নুর চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর বিষয়ে আনিসুল হক জানান, নুর চৌধুরীর বিষয়ে কানাডা সরকারের কাছে কিছু তথ্য চেয়েছিলাম। তারা সেসব তথ্য না দেয়ায় আমরা সে দেশের কোর্টে যাই। ২৫ মার্চ আমাদের আবেদনের ওপর শুনানি হয়। তখন নুর চৌধুরী ও আমাদের আইনজীবীরা শুনানি করেন। উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত পরে রায় দেবেন বলে জানিয়েছেন।

বিএম/রনী/রাজীব