রেলওয়ে ওয়ার্কশপে আগুন : ধোঁয়ায় অসুস্থ ১২

চট্টগ্রাম মেইল : পাহাড়তলী রেলওয়ে কারখানায় বগি মেরামতের কাজ করতে গিয়ে তেলের ট্যাংকারে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। এসময় কারখানায় কর্মরত শ্রমিক কর্মচারীদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও অগ্নিকাণ্ডে সৃষ্ট ধোঁয়ায় অন্তত ১২ জন কর্মচারী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে।

অসুস্থ হওয়া ১২ জনের মধ্যে রেলওয়ে সূত্রে ৮ জনের নাম পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন, মো. জাকির ডালিম (৩৪), মো. ইব্রাহিম (২৭), মো. রায়হান (২৪), মো. জামাল (৩২), সাইফুল রাসেল (২৬), রিপন ফরিদুল (২৭), মাহবুব আলম (৫৬) এবং কবির আহমেদ।

আজ বুধবার (২৭ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে রেলের ব্রুড শিট কাটতে গিয়ে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছে ফায়ার স্টেশন।

আগ্রাবাদ ফায়ার স্টেশনের স্টেশন অফিসার (এসও) দিদারুল আলম জানান, রেলের ব্রুড শিট কাটতে গিয়ে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। পরে রেলের ফায়ার এক্সটিং গুইশার দিয়ে আগুন নেভানোর সময় ধোঁয়ার কারণে অক্সিজেন সংকটে পড়ে কর্মচারীরা। অসুস্থ হয়ে পড়েন অন্তত ১২ জন কর্মচারী।

এদিকে ওয়ার্কশপের তত্ত্বাবধায়ক ফকির মহিউদ্দিন বলছেন, রেলের বগি ঝালাইয়ের কাজ করতে গিয়ে আগুন লাগলে নেভাতে যান কর্মীরা। সকল কর্মচারীদের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারলেও আগুন নেভানোর কাজে ব্যবহৃত কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের প্রভাবে বেশ কয়েকজন রেল কর্মচারী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদেরকে উদ্ধার করে সিআরবি রেলওয়ে হাসপাতাল ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তারা প্রত্যেকেই শ্বাসকষ্টে ভুগছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, বেলা ১১টার পর চট্টগ্রাম রেলওয়ের পাহাড়তলী কারখানায় সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ধোঁয়ায় অসুস্থ ৭জনকে চমেক হাসপাতালে আনা হয়। তিনি বলেন, অগ্নিকান্ডের ঘটনায় কোন শ্রমিক দগ্ধ হয়নি। চমেকে ভর্তি হওয়া ৭ রেলকর্মচারী অক্সিজেন সংকটে পড়ে শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত সমস্যায় ভুগছেন। বর্তমানে সকলেই শংকামুক্ত বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিএম/রনী/রাজীব