সীতাকুণ্ডে বিষাক্ত মদপানে ব্যবসায়ীর মৃত্যু, আটক ১ বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত যুবলীগ নেতা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি : সীতাকুণ্ডে বিষাক্ত মদপানে মো.নাসির উদ্দিন (৩৮) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে চমেক হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে একই ঘটনায় বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকাস্থ স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো.রবিউল হোসেন রবি (৩৬)। বর্তমানের তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

তবে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সৌদিয়া আবাসিক হোটেলের ম্যানেজার শরিয়ত উল্ল্যাহ (৪০) আটক করেছে পুলিশ। নিহত ব্যবসায়ী পৌরসদরস্থ দক্ষিণ মহাদেবপুর এলাকার আবদুল লতিফের পুত্র।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে পৌরসদরস্থ সৌদিয়া আবাসিক হোটেলে ম্যানেজার শরিয়ত উল্ল্যার উপস্থিতিতে ব্যবসায়ী নাসির ও রবিসহ বেশ কয়েকজন একত্রিত হয়ে মদ পান করেন।

মদ পানের একপর্যায়ে নাসির ও রবি সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন। মঙ্গলবার দুপুরে রবি’র জ্ঞান ফিরে এলে সে সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে বাড়ি চলে যায়। সিএনজি অটোরিক্সা থেকে নেমে নিজ ঘরে প্রবেশের সময় অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটে পড়েন রবি। এসময় পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

চমেক হাসপাতালের আইসিইউ’র নিবিড় পর্যপেক্ষনে থাকার পরও রবির অবস্থার পরিবর্তন না হওয়া কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরাপর্শে রবিকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

অন্যদিকে মদপানে দীর্ঘ সময় সংজ্ঞাহীন থাকার পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জ্ঞান ফেরার পর নিজের মোটর সাইকেল নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়না হন ব্যবসায়ী নাসির । কিন্তু বাড়ির কাছাকাছি যাওয়ার পর তিনি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। এসময় পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাসিরকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত নাসিরের ছোট ভাই জাকির হোসেন জানান, ফকিরহাট গরু বাজার ইজারার বিষয়ে আলোচনার কথা বলে ঘর থেকে বেরিয়ে সৌদিয়া আবাসিক হোটেলে আসেন নাসির। কিন্তু দীর্ঘসময় অতিবাহিত হওয়ার পরও সে বাড়িতে না ফেরায় আমি একাধিকবার হোটেলে খুঁজতে যায়। এসময় হোটেল ম্যানেজার নাসির ঘুমিয়ে আছে বলে আমাকে চলে যেতে বলে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অসুস্থ অবস্থায় চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আমার ভাইকে মৃত ঘোষণা করেন।

জাকির হোসেন আরো বলেন হোটেল ম্যানেজারের ভূমিকা দেখে নাসিরের মৃত্যু নিয়ে আমাদের মনে সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে। ময়নাতদন্তের রির্পোট পাওয়ার পর আমরা এ ব্যাপারে আইনি প্রক্রিয়ায় যাবো।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলওয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,“বিষাক্ত মদপানে নাছির নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে এবং আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে যুবলীগ নেতা রবি।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হোটেল ম্যানেজারকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে।”

বিএম/কামরুল ইসলাম দুলু/রাজীব