বাসচালকেরা বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও ভয়ঙ্কর

বিএম ডেস্ক : সড়কে মানুষ হত্যাকারী বাসচালকেরা বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও বেশি ভয়ঙ্কর বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেন, রাস্তায় যখন মানুষ মারা যায়, তখন আমরা সোচ্চার হই। কয়েকদিনের জন্য ব্যবস্থা নিই, তারপর আমরা চুপচাপ হয়ে যাই। এভাবে চলতে পারে না। আমি বিশ্বাস করি, অনুভব করি, বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও ভয়ঙ্কর হচ্ছে রাস্তার ঘাতকরা।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদ আয়োজিত ‘মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যাদের লাইসেন্স নেই, ফিটনেস নেই এইসব ঘাতকরা বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও ভয়ঙ্কর। আজকে যারা বিল্ডিং এর অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি করে, এরা ওদের চেয়েও ভয়ঙ্কর। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা অবশ্যই নিতে হবে।

বনানীর অগ্নিকাণ্ড প্রসঙ্গে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, গতকালের বনানীতে অগ্নিকাণ্ডের দুর্ঘটনায় ব্যথিত হয়েছি। দেখেছি কীভাবে বাঁচার জন্য আকুতি করেছে ভেতরের মানুষগুলো। সেখানে অনেকে স্বেচ্ছায় সেবার জন্য গেছে, বাঁচানোর জন্য গেছে। আবার অনেকে বাঙালির যে স্বভাব সেই তামাশা দেখার জন্যও গেছে। যাইহোক, দুনিয়া দেখেছে, বাংলাদেশ দেখেছে বঙ্গবন্ধু কন্যা কিভাবে আক্রান্তদের উদ্ধারের জন্য সেই মুহূর্ত থেকে মনিটর করেছে শেষ পর্যন্ত।

তিনি আরও বলেন, অবিলম্বে বনানীর ঘটনাকে তদন্ত করে যারা এই ধরনের গাফিলতি করেছে, যারা নির্মাণ কোড মানে নাই, যারা এই ধরনের কাজ করেছে তাদেরকে শুধু চিহ্নিত করলে হবে না, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও ব্যবস্থা করতে হবে। না হলে কিন্তু আবারও এই ঘটনা করবে। কোনও জীবন অর্থের বিনিময়ে ফেরত পাওয়া যাবে না।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে অনুরোধ করে নাসিম বলেন, এখন থেকে যতটুকু সম্ভব অর্থ বরাদ্দ গ্রহণ করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে শক্তিশালী করুন এবং মানুষকে বাঁচানোর জন্য যা প্রয়োজন ব্যবস্থা নিন।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের সভাপতি মাসুদ খান বাবু এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক সবুজ প্রমুখ।

বিএম/রনী/রাজীব