সরকার দুর্ঘটনার দায় এড়াতে পারেনা : ফখরুল

বিএম ডেস্ক : মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার দায়িত্বশীল নয় বলে একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটে যাচ্ছে, এর দায় সরকার এড়াতে পারে না।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় বনানীর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

চুড়িহাট্টার পর বনানীর অগ্নিকাণ্ডের মতো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। একই সঙ্গে কার্যকর ভূমিকা নিতে পারেনি রাজউক ও ফায়ার সার্ভিস। এমনটাই অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এসময় রাজউক এবং ফায়ার সার্ভিসের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, এই ঘটনার জন্য রাজউকের উদাসীনতা রয়েছে। কি করে তারা এতো বড় ভবনের অনুমতি দিলো এবং ১৮তলার অনুমতি নিয়ে কিভাবে ২৩তলা করে? আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য ফায়ার সার্ভিসের যথেষ্ট পরিমাণে জনবল এবং আধুনিক যন্ত্রপাতি নেই অভিযোগ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ভবনের উপর থেকে লাফ দেওয়ার জন্য নিচে কোনো নেট ব্যবহার করা হয়নি। যার কারণে অনেকের প্রাণহানি হয়েছে। জীবন বাঁচাতে যারা লাফ দিয়েছে তাদের বাঁচানোর জন্য নিচে নেট ব্যবহার করা যেতো। কিন্তু তা করেনি ফায়ার সার্ভিস।

এর আগে শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মহান স্বাধীনতা দিবস ও বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত আলোচনা সভায় ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি আর গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা এক সুত্রে গাঁথা।’ বলে মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, অপকর্ম আর ব্যর্থতা আড়াল করতে সরকার বাকশালের আওয়াজ তুলছে। তবে ফের একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন সফল হবে না।

বিএনপির মহাসচিব দাবি করেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে দলীয় প্রধানকে। দেশে গণতন্ত্র নেই অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি আর গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা এক সুত্রে গাঁথা।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই আওয়ামী লীগের নেতারা যারা কনভিক্টেড তারাও বাইরে রয়েছে। কিন্তু দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে বেআইনিভাবে আটক করে রাখা হয়েছে। প্রতিদিন তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে এবং আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন তাঁর স্বাস্থ্যের জন্য।’

বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন,‘কোনো মহৎ উদ্দেশ্যে নয়, নিজেদের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে ১৯৭৫ সালে আওয়ামী লীগ বাকশাল কায়েম করেছিল।’ তিনি আরো বলেন, ‘আবারো একই পথে হাঁটার ইঙ্গিত দিচ্ছে বর্তমান সরকার।’

বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, ‘যখন নির্বাচন কমিশনই বলছে যে নির্বাচন ঠিক হচ্ছে না তখনই বলা হচ্ছে বাকশাল খুব ভাল একটা ব্যবস্থা ছিল।’

জনগণের কাছে দায়বদ্ধতা নেই বলেই সরকার আবারো গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ নিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএম/রনী/রাজীব