খিলগাঁও বাজারে আগুনে পুড়েছে অর্ধশতাধিক দোকান, ক্ষতিগ্রস্তদের আহাজারি

বিএম ডেস্ক : রাজধানীর খিলগাঁও এলাকার রেললাইনের পাশের বাজার ও বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আজ ভোর সোয়া ৫টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুন নিভাতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ দুজন দগ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে ফায়ার সার্ভিসের ১৬টি ইউনিট। বুধবার দিবাগত রাত ৩টা ১৫ মিনিটে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টার আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনও ঘটনাস্থল থেকে কালো ধোঁয়া উড়ছে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অর্ধশতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

এদিকে বাজারের সামনে জড়ো হয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত দোকানিরা। তাদের চোখেমুখে সর্বস্বান্ত হওয়ার উদ্বিগ্নতা। মলিন চেহারায় তাকিয়ে আছেন পুড়ে যাওয়া দোকানগুলোর দিকে। তাদের মধ্যে বাজারের সামনে বসে বিলাপ করতে দেখা যায় অনেককে।

খিলগাওঁ বাজারে অগ্নিকান্ডের পরবর্তী দৃশ্য

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (অপারেশন এন্ড মেইনটেনেন্স) দিলীপ কুমার ঘোষ জানান, রাত সোয়া ৩টার দিকে খিলগাঁও বাজারে আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টায় ভোর সোয়া ৫টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এই বাজারে ছোট ছোট প্রায় ১৩০০ দোকান ছিল। তার মধ্যে আনুমানিক অর্ধশতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

তবে আগুনের সূত্রপাত এবং ক্ষয়ক্ষতির সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে এখনো কিছু জানা যায়নি। তদন্ত শেষে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাবে বলে জানান বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের ওই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, রাজধানীর বনানী, গুলশান, ডেমরা, গাউছিয়া মার্কেট ও তোপখানা রোডে ট্রপিক্যাল টাওয়ারের পর এবার আগুন লাগল খিলগাঁও বাজারে। গত ২৮ মার্চ বনানীর ২২তলা এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২৬ জন নিহত ও ৭১ জন আহত হন।

এর একদিন পরই ৩০ মার্চ গুলশান-১ ও ২ নম্বর এলাকায় আগুন লাগে। ১ এপ্রিল রাজধানীর ডেমরা ও গাউছিয়া মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এর পর দিন তোপখানা রোডে ট্রপিক্যাল টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

বিএম/রনী/রাজীব