আইয়ুব বাচ্চু ছাড়া আজ এলআরবি’র প্রথম জন্মদিন

বিনোদন ডেস্ক : দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় রক ব্যান্ড ‘লাভ রান্স ব্লাইন্ড’ (এলআরবি) আজ জন্মদিন।

১৯৯১ সালের আজকের দিনে কিংবদন্তি এই ব্যান্ডটি যাত্রা শুরু করে। সেই হিসাবে আজ এলআরবি’র ২৮ তম জন্মদিন। ব্যান্ডটির প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশের প্রয়াত কিংবদন্তী জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু। গেল বছরের ১৮ই অক্টোবর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আইয়ুব বাচ্চু মারা যাওয়ার পর এটাই এলআরবি’র আইয়ুব বাচ্চু ছাড়া প্রথম জন্মদিন।

এলআরবি’র ইতিহাস ঘেঁটে জানা যায়, আইয়ুব বাচ্চুর সাথে টুটুল, জয় এবং স্বপন ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে সহ-সদস্য হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন। পুরো নাম লাভ রান্‌স ব্লাইন্ড। শুরুতে ব্যান্ডটির নাম রাখা হয়েছিল ‘লিটল রিভার ব্যান্ড’। আরো পরে এই নামটিও পরিবর্তন হয়ে এখন হয়েছে ‘লাভ রান্স ব্লাইন্ড’। ১৯৯০ এর দশকের শুরুর দিকে এর যাত্রা শুরু, একটি ডাবল অ্যালবাম দিয়ে। এলআরবি’র প্রথম এই ডবলস্টি বের হয়েছিল ‘মাধবী’ এবং ‘হকার’ নামে। এটি বাংলাদেশ এর ইতিহাসের প্রথম ডবল অ্যালবাম। চলো বদলে যাই এলআরবি’র সবচেয়ে জনপ্রিয় গান।

আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় কিছু গান

এলআরবি তেরোটি স্টুডিও অ্যালবাম এবং দুটি লাইভ অ্যালবাম প্রকাশ করেছে। তারা কিছু মিশ্র অ্যালবামেও হাজির হয়েছে। তারা বাংলাদেশি হার্ড রক সংগীতের অগ্রগামী হিসেবে বিবেচিত। তারা মূলত একটি হার্ড রক ব্যান্ড হিসাবে গঠিত হয়েছিল।

সারগাম রেকর্ডসে স্বাক্ষর করার পর, এলআরবি ১৯৯২ সালে ‘এলআরবি ১’ এবং ‘এলআরবি ২’, বাংলাদেশের প্রথম ডবল অ্যালবাম প্রকাশ করেছিল। তাদের তৃতীয় অ্যালবাম ‘সুখ’ (১৯৯৩) তাদের দেশে আরও বাণিজ্যিক সাফল্য পেতে সাহায্য করেছিল এবং ‘চলো বদলে যায়’ গানটি তুলে ধরেছে। যা বাংলাদেশে সবচেয়ে জনপ্রিয় রক গান। তাদের জনপ্রিয়তা হিট অ্যালবাম ‘তবুও’ (১৯৯৪), ‘ঘুমন্ত শহর’ (১৯৯৫) ইত্যাদির সাথে চলতে থাকে। তারা একমাত্র বাংলাদেশী শিল্পী যারা নিউইয়র্কের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেন এ কন্সার্ট সঞ্চালন করেন। তাদের বেশ কয়েকবার সেরা শিল্পী নামকরণ করা হয়েছে। ১৯৯০ এর দশকের গোড়ার দিকে তারা মূলধারার খ্যাতি লাভ করেছিল এবং আর্ক এবং নগর বাউল এর সাথে ‘বিগ থ্রি অফ রক’ এর অংশ ছিল। যা দায়ী ছিল ১৯৯০ দশকে বাংলাদেশে রক সংগীত জনপ্রিয়তার জন্যে।

বিএম/রন/রাজীব