রাউজানে লোকালয়ে হনুমান

লোকালয়ে হনুমান

আমির হামজা, রাউজান : চট্টগ্রামের রাউজানের একটি ইউনিয়নে বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা মাতিয়ে বেড়াচ্ছে একদল মুখপোড়া হনুমান। বিশেষ করে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), জগৎপুর আশ্রম, পাহাড়তলী এলাকার ঊনসত্তর পাড়া গ্রামে বর্তমানে এসব হনুমানের বসবাসযোগ্য অন্যতম স্থান।

বিগত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে পাহাড় ছেড়ে এসব হনুমানের দল রাউজান পাহাড়তলী ইউনিয়নের কয়েকটি প্রাকৃতিক পরিবেশে আশ্রয় নিয়ে মনের আনন্দে সারাদিন খাবারের সন্ধানে এ গাছ থেকে ও গাছে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে তারা দীর্ঘ সময় এই ইউনিয়নে আশ্রয় নিলেও এখনো পর্যন্ত সাধারণ মানুষের ঘড়বাড়ি/ফসলি জমি ক্ষতি করার অভিযোগ উঠেনি। তাঁরা শুধু গাছে গাছে অল্প যা কিছূ হাতের নাগালে পাচ্ছে তাই খাদ্য হিসবে গ্রহণ করছেন।

হনুমান গুলো স্থানীয় এলাকার মানুষের এখন অন্যতম বিনোদন। অন্যদিক রাউজান-রাঙ্গুনিয়া দুই এলাকার মধ্য একদল বানর প্রতিনিয়ত মানুষের ফসলি জমিতে হানা দিয়ে ক্ষতি করে আসছে। প্রায় তিন থেকে চার হাজারও বেশি হবে প্রতিটি বানরের দলে।

স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, বানর আর হনুমান দেখতে প্রতিনিয়ত ভীড় করছে নানান বয়সী মানুষ। আশ্রয় হিসবে তাঁরা চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ও জগৎপুর আশ্রমকে নিরাপদ এলাকা হিসবে গ্রহণ করেছেন। তবে বেশির ভাগ সময় তাঁরা সময় নিয়ে ব্যস্ত থাকেন চুয়েট এলাকায়। কারণ চুয়েটের পরিবেশ সুন্দর ও নিরাপদ।

দেখা যায় খাবারের সন্ধানে এ হনুমান গুলো সারা দিন এ গাছ থেকে ও গাছে ছুঁটে বেড়াছে। আর রাতে তারা থাকছে উঁচু কোনো গাছের মগডালে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন জানান, পাহাড়ে খাদ্যের অভাব ও নিরাপদ আবাসস্থল না থাকার কারণে হনুমান গুলো যেকোন সময় চলে যেতে পারে। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য ও পরিবেশ তৈরির জন্য অনুরোধ জানান।

বিএম/হামজা/রাজীব…