“বনলতা এক্সপ্রেস” পহেলা বৈশাখে চালু হচ্ছেনা

বনলতা এক্সপ্রেস

বিএম ডেস্ক : রাজশাহী-ঢাকা রুটের নতুন বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেনের নাম রাখা হচ্ছে ‘বনলতা এক্সপ্রেস’। পহেলা বৈশাখ থেকেই ট্রেনটি যাত্রা শুরু করছে না বলে জানা গেছে।

আজ বুধবার (১০ এপ্রিল) নতুন এই ট্রেনের নাম চূড়ান্ত করা হয় বলে রেল মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়। তবে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, আসন্ন বাংলা নববর্ষে থেকেই ট্রেনটি চালুর সম্ভাবনা থাকলেও এতে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

গত শুক্রবার (৫ এপ্রিল) ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশন পরিদর্শনে গিয়ে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, পয়লা বৈশাখ থেকেই রাজশাহী ও ঢাকা রুটের জন্য বহুল প্রত্যাশিত বিরতিহীন ট্রেনটি চালু হতে যাচ্ছে।

তবে সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা যায়, মন্ত্রীর ঘোষণা করার পর থেকে নতুন আন্তঃনগর ট্রেনটি চালু করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হয়। তবে শেষ সময়ে এসে প্রস্তুতি নিতে আরও কিছু সময়ের প্রয়োজন হওয়ায় তা পিছিয়েছে।

সূত্র জানায়, ২০ এপ্রিলের পর যেকোনো একটি দিনকে টার্গেট করে এখন প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। সে হিসেবে এ মাসের শেষের দিকেই নতুন এই ট্রেনটি উদ্বোধন করার সম্ভাবনা রয়েছে। সূত্রমতে, দেশের বাইরে থেকে নতুন বগি এলেও নতুন ইঞ্জিন আনার বিষয়টি খানিকটা বিলম্বিত হচ্ছে। তারপরেও রাজশাহীর জনপ্রতিনিধিদের চাপ থাকায় নতুন ইঞ্জিন হাতে আসার আগেই ট্রেনটি চালু করতে বিকল্প ইঞ্জিন প্রস্তুত করা হয়েছে।

এই নিয়ে যোগাযোগ করা হলে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার শহিদুল ইসলাম নিশ্চিত করে বলেন, পয়লা বৈশাখ থেকে নতুন আন্তঃনগর ট্রেন চালু হচ্ছে না।

কবে চালু করা হবে সেই ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কিছু না জানিয়ে তিনি বলেন, আমি শুধু এটুকু বলতে পারি, এই ট্রেন চালু হতে খুব বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না।

নতুন এই ট্রেনটি চালু হলে মাত্র সাড়ে ৫ থেকে ছয় ঘণ্টায় ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়া যাবে। ১২ বগির এই ট্রেনে আসনসংখ্যা হবে ৯৩২। চালু হলে এটি দেশের সর্বাধুনিক হাইস্পিড কোচের ট্রেন হবে বলে জানিয়েছে রেল মন্ত্রণালয় সূত্র।

নতুন ট্রেন চালু হলে ঢাকা রাজশাহী রুটে আন্তঃনগর ট্রেন সংখ্যা হবে চারটি। বর্তমানে চালু আছে পদ্মা, ধূমকেতু ও সিল্কসিটি এক্সপ্রেস নামে তিনটি ট্রেন।

বিএম/রনী/রাজীব