মানবতাবিরোধী আজহার ও কায়সারের আপিল শুনানী ১৮ জুন

বিএম ডেস্ক : একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা এটিএম আজহারুল ইসলাম এবং জাতীয় পার্টির প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের আপিল শুনানির জন্য আগামী ১৮ জুন দিন ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ।

বুধবার (১০ এপ্রিল) সকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে জামায়াত নেতা আজহারের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। প্রথমে আদালতে শুনানির প্রস্তুতির জন্য ৮ সপ্তাহের সময় আবেদন করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

আদালত বলেন, আমার হেয়ারিং এর জন্য যেদিন সময় দিব, ওই দিনই হেয়ারিং শুরু হবে। আজহারের আপিল মামলাটি কার্যতালিকায় ১ নম্বর ক্রমিকে থাকবে এবং কায়সারের মামলাটি ২ নম্বর ক্রমিকে থাকবে। একটা মামলার আপিল শুনানি শেষ হলে আরেকটা শুরু হবে। এরপর আদালত আপিল শুনানির জন্য ১৮ জুন নির্ধারণ করে দেন।

২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর এক রায়ে এ টি এম আজহারকে মৃত্যুদণ্ড দেন ট্রাইব্যুনাল। এ রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ২৮ জানুয়ারি আপিল করেন আজহার। এ মামলায় ট্রাইব্যুনালের আদেশে ২০১২ সালের ২২ আগস্ট আজহারকে গ্রেফতারের পর থেকে তিনি কারাবন্দি।
অন্যদিকে ২০১৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর এক রায়ে কায়সারকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। এ রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ১৯ জানুয়ারি আপিল করেন কায়সার। ২০১৩ সালের ২১ মে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতাল থেকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর ওই বছরের ৫ আগস্ট শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়ে ঢাকায় ছেলের বাসায় ছিলেন কায়সার। তবে রায়ের পর থেকে তিনি কারাবন্দি।

বিএম/রনী/রাজীব