সম্প্রচার আইন না মানলে লাইসেন্স বাতিল : তথ্যমন্ত্রী

সম্প্রচার আইন না মানলে লাইসেন্স বাতিল

বিএম ডেস্ক : সম্প্রচার আইন লঙ্ঘন করে বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচার করলে ক্যাবল অপারেটরদের লাইসেন্স বাতিলসহ আর্থিক জরিমানা করা হবে। এছাড়া বিদেশি মডেল দিয়ে বিজ্ঞাপন নির্মাণের ক্ষেত্রেও বিধিনিষেধ আনা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার (১০ এপ্রিল) দুপুরে সচিবালয়ে সম্মেলন কক্ষে টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাটকোর নেতাদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, আবেদন করায় জাদু ভিশন ও ন্যাশন ওয়াইড লিমিটেডকে আমরা ১৫ দিন সময় দিয়েছি। প্রতিষ্ঠান দুটি ডাউনলিঙ্ক করে বিদেশি চ্যানেল দেখায়। তারাই নিয়ম লঙ্ঘন করে দেশি বিজ্ঞাপন বিদেশি চ্যানেলে প্রচার করছে। এর পরেও তারা নিয়ম না মানলে তাদের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

এ সময় অ্যাটকোর নেতৃবৃন্দ দাবি করে বলেন, বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচার এখন সম্পূর্ণ বন্ধ হয়নি, এটা বন্ধ করতে হবে। বিদেশি চ্যানেলগুলোকে ক্লিন ফিড নিশ্চিত করতে হবে।

নেতারা বলেন, আগামী এক বছরের মধ্যে টেলিভিশনগুলোকে ডিজিটালাইজেশনে আসতে হবে। এর মাধ্যমে সরকার দুই থেকে তিন হাজার কোটি টাকা ভ্যাট পেতে পারে।

তথ্যমন্ত্রীর কাছে বিজ্ঞাপনে বিদেশি মডেল ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নীতিমালা সংশোধন করার প্রস্তাবও তোলেন অ্যাটকোর নেতারা।

তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে অ্যাটকোর সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী পিন্টুর সঙ্গে ছিলেন ডিবিসির চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী, চ্যানেল ২৪ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে আজাদ, একাত্তর টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল বাবু, আরটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোরশেদ আলম প্রমুখ।

বর্তমানে ৪৪টি টেলিভিশন চ্যানেলের লাইসেন্স দেওয়া আছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “৩৩টি অন এয়ারে আছে এবং আরও কয়েকটা খুব সহসাই অন এয়ারে আসবে।”

বিএম/রনী/রাজীব