চারদিনের সফরে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ঢাকায়

বিএম ডেস্ক : চারদিনের সরকারি সফরে ঢাকায় এসেছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকাল ৮টা ২০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামে তাকে বহনকারী বিমানটি। এসময় অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।পরিচয় করিয়ে দেয়া হয় মন্ত্রিসভার সদস্য ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে।

পরে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীকে নেয়া হয় অভ্যর্থনা মঞ্চে। তিন বাহিনীর একটি সুসজ্জিত দল তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করে।


বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে ডাক্তার লোটে শেরিংকে নেয়া হয় হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে। সফরকালে তিনি সেখানে অবস্থান করবেন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সূত্রে জানা গেছে, সকালে ধানমণ্ডি ৩২ এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ও পরে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন শেরিং।

দুপুরে বারিধারায় ভুটান দূতাবাসে যাবেন তিনি। বিকালে বুদ্ধিস্ট মোনাস্টারি কমপ্লেক্স, বাসাবো, সবুজবাগ এবং এরপর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টাইগার গেটে শেরিংকে অভ্যর্থনা জানাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (শিমুল) দুই প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

বৈঠকে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবহার করে ভুটানের বাণিজ্য সুবিধা ছাড়াও কৃষি ও স্বাস্থ্য খাতে কয়েকটি চুক্তি সই হওয়ার কথা রয়েছে। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (চামেলী) দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আনুষ্ঠানিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হলে দুই দেশের মধ্যে চুক্তি সই ও যৌথ প্রেস বিবৃতি অনুষ্ঠিত হবে। এদিন রাতে হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে তার সম্মানে আয়োজিত একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নৈশভোজে অংশ নেবেন শেরিং।

জানা গেছে, সফরকালে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং।

১৪ এপ্রিল সকাল সাড়ে ৬টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত সুরের ধারার পহেলা বৈশাখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়া পুরনো বিদ্যাপীঠ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়েও তিনি যাবেন।

বিএম/রনী/রাজীব