দুই শতাধিক ভর্তিচ্ছুর পদচারণায় মুখর ইডিইউ ক্যাম্পাস

দুই শতাধিক ভর্তিচ্ছুর পদচারণায় মুখর ইডিইউ ক্যাম্পাস

শিক্ষাঙ্গণ মেইল : দুই শতাধিক ভর্তিচ্ছুর পদচারণায় সকাল থেকেই মুখর হয়ে ওঠে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি (ইডিইউ) ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণ। সঙ্গে রয়েছেন তাদের অভিভাবকরাও। ইডিইউর সামার ২০১৯ সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা আজ ১২ এপ্রিল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়।

দুপুর ১টা পর্যন্ত তিনটি স্কুলের অধীনে নয়টি বিভাগে ভর্তি ফরম নেয়া শিক্ষার্থীরা অংশ নেয় এই পরীক্ষায়। বিভাগগুলো হলো- স্কুল অব বিজনেসের অধীনে বিবিএ, এমবিএ ও মাস্টার অব পাবলিক পলিসি অ্যান্ড লিডারশিপ; স্কুল অব লিবারেল আর্টসের অধীনে ইংরেজি (বিএ ও এমএ), অর্থনীতি; স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অধীনে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেক্ট্রনিক ও ইলেক্ট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ইলেক্ট্রিকাল ও টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং।

পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, গত স্প্রিং সেমিস্টার থেকে ভিন্ন আঙ্গিকে আমরা শিক্ষার্থীদের ইংরেজি ও গণিতের মেধা যাচাই করছি। অনেকেরই স্কুল-কলেজের শিক্ষায় তারতম্য থাকে। আমরা সেসব নিরূপণ করে শিক্ষার্থীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের পড়ালেখার জন্য প্রস্তুত করে তুলবো। পরীক্ষার্থীদের সব প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে, এজন্য তারা নির্দিষ্ট সময়ের চেয়েও বাড়তি সময় পর্যন্ত পরীক্ষা দিতে পারছে।

পরে দুপুরে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান। তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি সত্যিকার অর্থেই ভর্তিচ্ছুদের মেধা যাচাই করে। শুধু পরীক্ষার উত্তরপত্র দিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে পরিপূর্ণভাবে যাচাই করা যায় না বলে আমরা ভর্তিচ্ছুদের সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে তাদের সক্ষমতাগুলো খুঁজে বের করবো। এর ফলে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ব্যক্তিগত পর্যায়ে পরিচর্যা করার মাধ্যমে তাদের মেধা বিকাশে সহযোগিতা করতে পারবো।

সন্তানের অপেক্ষায় থাকা বাবা-মায়েদের জটলা দেখা যায় ক্যাফেটেরিয়া ও অ্যাম্ফিথিয়েটারে। সময়ক্ষেপনে তারাও মেতে ওঠেন আড্ডায়। আড্ডার ফাঁকে কথা হলে গৃহিণী শারমিন আক্তার বলেন, ইডিইউর ক্যাম্পাসটাই এমন যে আমরা অভিভাবকরাও যেন ফিরে গেছি ক্যাম্পাস লাইফে। 

বিএম/রাজীব..