পেশায় সেইফ লাইন গাড়ির চালক, রাতে পেশাদার ছিনতাইকারী

কামরুল ইসলাম দুলু : পেশায় সেইফ লাইন গাড়ির চালক। সেটা অবশ্য তার দিনের কাজ, রাতে সে পেশাদার ছিনতাইকারী। কখনও গাড়িতে যাত্রী তুলে ছিনতাই করে। আবার কখনও নিজেরা যাত্রীবেশে প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ভাড়া নিয়ে গাড়ি ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

মোহাম্মদ হেলাল ও আবদুল কায়েম নামে এরকম দুই ছিনতাইকারীকে আটক করেছে এলাকাবাসী ।

গাড়ীসহ আটক দুই ছিনতায়কারী

এসময় ছিনতাইকাজে ব্যবহারিত একটি লেগুনাকে আটক করে। আটককৃত দুই ছিনতাইকারীকে স্থানীয় জনতা বারআউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের মাধ্যমে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

সীতাকুণ্ড-অলংকার সড়কে চলাচল করা সেইফ লাইন গাড়িগুলো নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে ছিনতাই আতঙ্ক বিরাজ করছে। প্রতিদিন রাতে কোথাও না কোথাও সেইফ লাইনে ওঠা যাত্রী গাড়ির মধ্যে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে সর্বস্ব হারাচ্ছেন। গত বুধবার বার আউলিয়া এলাকা থেকে ৮ জন যুবক শহরে একটা অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন সেইফ লাইনে করে। কিছুদুর যাওয়ার পর ঐ গাড়িতে আরো ৮ জন যাত্রীবেশী ছিনতাইকারী উঠে অস্ত্র ধরে ৮ যুবকের কাছ থেকে মোবাইল, টাকা-পয়সা কেড়ে নেয়।

আজ শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকালে ঐ যুবকরা বার আউলিয়া আমিনউল্লাহ পেট্টোল পাম্পের সামনে গাড়ি ও ড্রাইভারকে দেখে আটক করে নিয়ে আসে। দুইজনকে প্রথমে বার আউলিয়া হাইওয়ে থানায় হস্তান্তর করে, পরে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় হস্তান্তর করে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই জুলফিকার ও বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার এসআই মনির হোসেন বলেন, দুই ছিনতাইকারীকে স্থানীয় এলাকাবাসী আটক করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। একটি সংঘবদ্ধ দল সেইফ লাইনের ড্রাইভার, হেলপারসহ মিলে প্রতিনিয়ত যাত্রীদের কাছ থেকে সর্বস্ব কেড়ে নেয়।

বিএম/দুলু/রনী/রাজীব