প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ‘স্টুডেন্ট বাস সার্ভিস’ চালু হচ্ছে চট্টগ্রামে

মোরশেদ রনী : চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নববর্ষের উপর ১০টি বিআরটিসি বাস।

শিক্ষার্থীদের যাতায়তের সুবিধার্তে ‘স্টুডেন্ট বাস সার্ভিস’ নামে ১০টি বিআরটিসি বাস চালু করার করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

শিক্ষার্থীরা স্কুলে যাতায়তের সময় বাসগুলি ব্যবহার করতে পারবে।

জেলা প্রশাসক ও জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে সমন্বয় করে বাস সার্ভিস চালু করতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ মো: তোফাজ্জল হোসেন মিয়া স্বাক্ষরিত পত্রে এ তথ্য জানা যায়।

উল্লেখ্য যে এ বিষয়ে চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার দাবীতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল।

চট্টগ্রামের ছাত্রছাত্রীদের উপর পরিবহন নৈরাজ্য বন্ধ করতে ও নিরাপদ যাতায়াতের সুবিধার্থে বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে গতমাসে নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনীর নেতৃত্বে জেলা প্রশাসকের সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন।

জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন তখন বলেছিলেন, এটা আমি জানি। কিন্তু পরিবহন মালিক শ্রমিকদের জিম্মিদারীত্বের কারনে তা আলোর মুখ দেখেনি। সরকার ইতিমধ্যে বিদেশ থেকে কিছু বিআরটিসি বাস আমদানী করেছে। আমি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে এ বিষয়ে কথা বলে ২০টি বাস চট্টগ্রামের স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দের চেষ্টা করবো। আশা করি সড়ক ও পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সুস্থ হয়ে দেশে ফিরলেই এই বাস আমরা পেয়ে যাবো।

চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের দাবী ও আন্দোলন অবশেষে বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে । নগরীতে ১০টি বিআরটিসি বাস চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। বিআরটিসি বাসে শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড প্রদর্শন করে অর্ধেক ভাড়ায় যাতায়াত করতে পারবে।

বিএম/রনী/রাজীব