সঙ্গীত শিল্পী বাবুল আচার্য্য গুরুতর অসুস্থ

সঙ্গীত শিল্পী বাবুল আচার্য্য অসুস্থ

বোয়ালখালী প্রতিনিধি : বোয়ালখালী উপজেলার সংগীত শিল্পী বাবুল আচার্য্য গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩য় তলায় ১৪ নাম্বার ওয়ার্ডের ৬৫ নাম্বার সিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বোয়ালখালী শিল্পী সংস্থার সভাপতি নাট্যকার মুক্তিযোদ্ধা হামিদুল হক সিকদার জানান, সংগীত শিল্পী বাবুল আচার্য্যরে শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভালো নেই। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন রোগ নিরুপনের জন্য পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে। এ গুণি শিল্পীকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

উপজেলার পশ্চিম শাকপুরা গ্রামে ১৯৫২ সালে জন্ম বাবুল আচার্য্যরে। তাঁর পিতা শহীদ বিশ্বেশ্বর আচার্য্যও ছিলেন সঙ্গীত শিল্পী। বাবার হাতে গানের হাতখড়ি বাবুল আচার্য্যের। ৫ ভাই বোনের মধ্যে বাবুল আচার্য্য ছিলেন বড়।

মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে শহীদ হন বিশ্বেশর আচার্য্য। পরিবারের ভরণপোষণ টানতে গানের টিউশনি করে জীবিকা নির্বাহ শুরু করেন বাবুল আর্চায্য। সংসার জীবনে এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক বাবুল আচার্য্য। তাঁর রয়েছে অসংখ্য শিক্ষার্থী। এর পাশাপাশি তা্রঁ রচিত অনেক গান নিজেই সুর করেছেন তিনি। দেশ স্বাধীন থেকে এ পর্যন্ত সহ¯্রাধিক গানের সূর করেছেন তিনি। করেছেন শতাধিক নাটকের মঞ্চায়ন।

৫২ ভাষা আন্দোলন নিয়ে তাঁর রচিত গান ‘ লাল পলাশের মালা আমরা গেঁথেছি/ বায়ান্নতে ভাষার লাগি জীবন দিয়েছি…’ । এ ছাড়া মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে লিখেছেন ‘ দেশ দেখেছো তোমরা সবাই, লাশ তো দেখনি/ কেমন করে স্বাধীন হলাম, শোন তার কাহিনী…’

তিনি গত প্রায় ১ বছর ধরে বিভিন্ন রোগাক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী হন বলে জানিয়েছেন তাঁর পুত্র রণি আচার্য্য।

বিএম/পুজন সেন/রাজীব..