সোনাগাজীতে দুই সন্তানের জননীকে গণধর্ষণ,আটক ১

বিএম ডেস্ক : ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় এবার দুই সন্তানের জননীকে দলবেধে ধর্ষণ করেছে তিন দুর্বৃত্ত। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের আদর্শগ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই গৃহবধূ বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিকেলে তিনজনের নাম উল্লেখ করে আদর্শগ্রাম পুলিশ ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্তরা হলেন- দক্ষিণ চরদরবেশ আদর্শগ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে নূর আলম (৩০), আব্দুল হাদির ছেলে মোশারফ হোসেন, আব্দুল হালিমের ছেলে আলম। তাদের মধ্যে নূর আলমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

লিখিত অভিযোগে ওই গৃহবধূ উল্লেখ করেন, মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা ওই তিনজন তার মুখ চেপে ধরে পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড়ে নিয়ে গিয়ে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে নূর আলম পা দিয়ে তার বুকের উপর আঘাত করে ও মোশারফ হোসেন কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করে ফেলে রেখে যায়। বুধবার সকালে তার জ্ঞান ফেরে।

দীর্ঘদিন যাবত একই এলাকার নুর আলম, মো. আপেল ও মোশারফ হোসেন নামে তিন বখাটে যুবক তাকে বিভিন্ন ভাবে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

তাদের প্রস্তাবে রাজি না হলে তাকে অপহরণ করে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বখাটেরা। বিষয়টি ওই গৃহবধূ তার পরিবারের সদস্যদেরকে জানায়। তারা বিষয়টি সম্পর্কে বখাটেদের পরিবারকে অবহিত করে। কিন্তু এতে কোন লাভ হয়নি। এই নিয়ে স্থানীয় ভাবে সালিশ-বৈঠকও হয়েছিল।

পুলিশ হেফাজতে থাকা নূর আলম জানান, তিনি স্থানীয় যুবলীগের কর্মী। তবে আদর্শগ্রাম ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাইন উদ্দিন জানান, নূর আলম আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত না।

আদর্শগ্রাম পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই শ্যামল দাস জানান, ওই গৃহবধূর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ফেনী সদর হাসপাতালে ওই গৃহবধূর শারীরিক পরীক্ষা ও জবানবন্দি রেকর্ড করার জন্য প্রক্রিয়া চলছে।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) কামাল হোসেন পিপিএম বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতার আসামিকে বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির করা হবে।

বিএম/রনী/রাজীব