বৈশাখী টিভি ডেসটিনির,বুলুর রিভিউ খারিজ

বিএম ডেস্ক : বৈশাখী টেলিভিশনের মালিকানা নিয়ে রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। টেলিভিশনটির সাবেক পরিচালক এমএনএইচ বুলুর রিভিউটি খারিজ করে দেওয়ায় বৈশাখী টিভির মালিকানা ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেডের কাছেই থাকছে বলে জানিয়েছেন ব্যারিস্টার মইনুল ইসলাম।

আজ বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের বেঞ্চ আবেদনটি খারিজ করে দেন।

আদালতে আজ বৈশাখী টিভির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি, তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার মইনুল ইসলাম।

এসময় আদালত বলেছেন, শেয়ার হস্তান্তর সঠিক হয়নি এই দাবি করে হাইকোর্টে এমএনএইচ বুলু যে আবেদন করেছিলেন তা আইনের দৃষ্টিতে অচল। এ ধরনের আবেদন করার ক্ষেত্রে আবেদনকারীর ন্যূনতম এক দশাংশ শেয়ারের মালিক হতে হয়। অথচ বুলু যখন দরখাস্ত করেন তার কোনো শেয়ার ছিল না। ফলে তার আবেদনটি আইনত রক্ষণীয় নয়।

মামলা নথি থেকে জানা যায়, ৩০ অক্টোবর ২০০৮ সালে বৈশাখী মিডিয়া লিমিটেড এর তৎকালীন সকল পরিচালকসহ ডেসটিনি ২০০০ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল আমীন ও প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড এর হেড অব ক্রেডিট রিকভারি মো: গোলাম রাব্বানীর উপস্থিতিতে প্রথমে বোর্ড মিটিং ও শেয়ার হস্তান্তর চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। যার মূল বিষয় ছিল, বৈশাখী মিডিয়া লিমিটেড এর ক্ল্যাসিফাইড লোনের টাকা ডেসটিনি -২০০০ লি: সর্বোচ্চ সংখ্যাক শেয়ার মালিকানা নিশ্চিত করার ভিত্তিতে প্রাইম ব্যাংকের লোন পরিশোধ করার দায়িত্ব নিবে এবং তৎকালীন সকল পরিচালক ডেসটিনি ২০০০ লি:কে প্রথমে ৫১ শতাংশ বা তার অধিক শেয়ার মালিকানা দিবে। চুক্তি মোতাবেক ৩০ জুন ২০০৯ এর মধ্যে পূর্বে স্বাক্ষরিত ফরম-১১৭ ও শেয়ার হস্তান্তর সংক্রান্ত কাগজপত্র রেজিষ্টার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানীতে জমা দিয়ে শেয়ার হস্তান্তর সম্পূর্ন করে মালিকানা নিশ্চিত করে ডেসটিনি। পরবর্তীতে ডেসটিনি কর্তৃক প্রাইম ব্যাংক লি: এর লোন সেটেল হওয়ার পর বৈশাখী মিডিয়ার তৎকালীন সাবেক পরিচালক এম এন এইচ বুলু তাঁর শেয়ার ডেসটিনিকে হস্তান্তর করতে অস্বীকার করেন এবং ডেসটিনি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় ২০১১-২০১২ সালে এম এন এইচ বুলুর পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশন রায় দেন। পরবর্তীতে ডেসটিনি কর্তৃপক্ষ সে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সুপ্রিম কোর্টের আপিলেড ডিভিশন ডেসটিনির করা লিফ টু আপিল মঞ্জুর করেন।

পরবর্তীতে প্রায় দুই বছর অতিবাহিত হওয়ার পর অদ্য ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বুধবার সুপ্রিম কোর্টের আপিলেড ডিভিশন প্রধান বিচারপতির আদালত ১৪ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি দুই দিন শুনানী শেষে আপিল আবেদন মঞ্জুর করেন। এই রায়ের ফলে ডেসটিনি ২০০০ লিমিটেড এর বৈশাখী মিডিয়া লিমিটেড এ ৯৮.৭২ শতাংশ শেয়ার মালিকানা নিশ্চিত হল।

ডেসটিনির পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিষ্টার আজমালুল হক কিউসি। তাঁকে সহযোগিতা করেন ডেসটিনির আইনজীবী প্যানেল এবং মামলার শুরু থেকে আইনজীবীদের মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করেন ডেসটিনি গ্রুপের কোম্পানী সেক্রেটারি মো: মিজানুর রহমান, এফসিএস।

এম এন এইচ বুলু’র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিষ্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদসহ আরো অনেকে।

বিএম/রনী/রাজীব