গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে চার ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ

Media News concept

বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে চার ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ রয়েছে ১৫০তম অবস্থানে। সূচকটি তৈরি করেছে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা ফ্রান্সভিত্তিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে কঠোর নিয়মনীতির শিকার হচ্ছেন সাংবাদিকেরা। সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা লঙ্ঘনের ঘটনাও বেড়েছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, বেড়েছে মাঠপর্যায়ে কাজ করা সাংবাদিকদের ওপর রাজনৈতিক হামলার ঘটনাও বেড়েছে। বিভিন্ন অনলাইন সংবাদ পোর্টাল বন্ধ করে দেওয়া এবং সাংবাদিকদের বিতর্কিতভাবে গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটছে।

রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস আরো বলেছে, বাংলাদেশে নতুন অস্ত্র হিসেবে এসেছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন। ২০১৮ সালের অক্টোবরে এ আইন চালু হয়। এ আইনের অধীনে ‘নেতিবাচক প্রোপাগান্ডা’ চালানো যেকোনো পক্ষকে ১৪ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া যাবে। অন্যদিকে একটি ধর্মনিরপেক্ষ সমাজের স্বপ্ন দেখা সাংবাদিক ও ব্লগারদের হয়রানি করছে জঙ্গিরা। কিছু ক্ষেত্রে এসব জঙ্গি সাংবাদিকদেরও হত্যা করছে।

সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে তুর্কমেনিস্তান

সাংবাদিকদের কর্মপরিবেশ এবং কাজের স্বাধীনতার দিক থেকে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম সূচকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে রয়েছে তুর্কমেনিস্তান। গত বছর উত্তর কোরিয়ার অবস্থান সবার শেষে থাকলেও এবার তাদের অবস্থান তুর্কমেনিস্তানের ঠিক ওপরে।

শীর্ষে নরওয়ে
বিগত বছরের মতো ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম সূচকে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে নরওয়ে। তার পরেই রয়েছে ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন। ব়্যাংকিংয়ে তৃতীয় শীর্ষ দেশ থেকে নেমে গেছে নেদারল্যান্ডস।

জার্মানির দুই ধাপ উন্নতি 
আগের বছরের ১৫তম অবস্থান থেকে ১৩তম অবস্থানে উঠে এসেছে জার্মানি৷ তবে সাংবাদিকদের জন্য প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও জার্মানির অগ্রগতির কারণ অন্যদের পিছিয়ে যাওয়া। যেমন- অস্ট্রিয়া গত বছরের ১১তম অবস্থান থেকে এবার ১৬-তে নেমেছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় ভালো অবস্থানে ভুটান

সূচকে ৮০তম স্থানে থাকলেও দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে রয়েছে ভুটান। দক্ষিণ এশিয়ায় ভুটানের পরে অবস্থান করছে মালদ্বীপ। দেশটির সূচকে ৯৮তম স্থানে অবস্থান করছে।

ভারত-পাকিস্তান কাছাকাছি
সাংবাদিকদের কর্ম পরিবেশের দিক থেকে কাছাকাছি অবস্থানে রয়েছে ভারত ও পাকিস্তান। আগের বছরের মতো ১৪০তম অবস্থানে আছে ভারত এবং ১৪২তম স্থানে পাকিস্তান।

‘সমস্যাগ্রস্ত’ যুক্তরাষ্ট্র
স্কোর অনুযায়ী, তিন ধাপ নেমে সূচকে ৪৮তম অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সূচক অনুযায়ী ৩৭ শতাংশ দেশের মতো ‘সমস্যাগ্রস্ত’ (প্রবলেমেটিক) দেশ বিবেচিত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সাংবাদিকদের বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরূপ অবস্থানকে এর জন্য দায়ী করেছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস।