বায়েজিদে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার : পরিবারের দাবী হত্যা,স্বামী আটক

বায়েজিদে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার পরিবারের দাবী হত্যা

চট্টগ্রাম মেইল : চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানা এলাকার একটি বাসা থেকে দিলুয়ারা বেগম মুক্তা নামে এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মুক্তা নগরীর মুরাদপুর এলাকার শহীদ জানে আলম সড়কের বাসিন্দা মো. আমিরের মেয়ে। স্বামী সাইফুল একটি বাইয়িং হাউসে কর্মরত রয়েছে নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

আজ শুক্রবার দুপুরে বায়েজিদ চাইলদ্দ্যাতলী বোর্ড অফিস সংলগ্ন সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার মরহুম লেয়াকতের বাড়ি থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পুলিশ প্রাথমকিভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধুর স্বামী মো. সাইফুল ইসলামকে আটক করেছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।

নিহতের ছোট ভাই মো. সোহেল এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড দাবী করে বলেন, তার বোনের স্বামী ও পরিবারের সদস্যরা মিলে তার বোনকে দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতন করে আসছে। সর্বশেষ গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার সময় তার বাবাকে ফোন করে তাকে বেধরক মারধর করেছে বলে জানিয়েছে। সকালে খবর পায় তার বোন মারা গেছে।

এ ঘটনায় শুক্রবার বিকেলে নিহতের পিতা মো. আমির বাদি হয়ে বায়েজিদ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান সোহেল।

বায়োজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার লাশ উদ্ধারের তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন, শশুর বাড়ির লোকজন বলছে মহিলা আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু তার পরিবারের দাবী হত্যা। আমরা লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

তবে পরিবারের অভিযোগের ভিক্তিতে আমরা হত্যা মামলা নিয়েছি এবং স্বামীকে আটক করেছি।

বিএম/রাজীব সেন…