সিলেটে গৃহবধুকে ধর্ষণকারী ধর্ষক কারাগারে

ছাত্রী ধর্ষণ সেনবাগ

বিএম ডেস্ক : সিলেটের ওসমানীনগরে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে ভিডিও চিত্র ধারণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার সকালে ওই ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পরে তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম শফজুল মিয়া (৩৮)। ওই নারীকে শুক্রবার সকালে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে।

ওসমানীনগর থানা সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন আগে পারিবারিক কাজে সহযোগিতার কথা বলে ওই নারীকে ওসমানীনগর থেকে সিলেটে নিয়ে যান শফজুল। পরে একটি হোটেলে নিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখেন তিনি। এরপর থেকে ওই ভিডিওর কথা বলে আরও কয়েকবার ধর্ষণ করেন শফজুল।

গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই নারী ওসমানীনগর থানায় মামলা করেন। শুক্রবার সকালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে গোয়ালাবাজার এলাকা থেকে শফজুলকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের পাশাপাশি ধর্ষণের ভিডিও চিত্রটিও উদ্ধার করে পুলিশ। পরে দুপুরে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন শফজুল।

ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আল মামুন জানান, ওই নারী তিন সন্তানকে নিয়ে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন। তাঁর স্বামী মারা গেছেন। সহযোগিতা করার কথা বলে শফজুল ওই নারীকে সিলেটে নিয়ে ধর্ষণ ও ভিডিও চিত্র ধারণ করেন।

ওসি জানান, স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর অভিযুক্তকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

বিএম/রনী/রাজীব