দেওবন্দের স্টুডেন্ট ভিসা পাবেন যেভাবে

বিএম ডেস্ক : ভারতের ঐতিহ্যবাহী প্রসিদ্ধ দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলূম দেওবন্দ। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ার স্বপ্ন দেখে অনেকে কওমী মাদরাসার শিক্ষার্থী। কিন্তু ভিসা জটিলতার কারণে অনেকের সে স্বপ্ন বাস্তবে ধরা দেয় না, স্বপ্নই থেকে যায়। সম্প্রতি দারুল উলুম দেওবন্দে স্টুডেন্ট ভিসার মাধ্যমেই পড়তে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ এসেছে।

দেওবন্দের স্টুডেন্ট ভিসা পাবেন যেভাবেদারুল উলুম দেওবন্দে পড়াশোনা করতে ইচ্ছক যে কোনো বাংলাদেশিকে ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস থেকে নিতে হবে ‘স্টাডি ভিসা। আগের মতো টুরিস্ট ভিসায় দেওবন্দ গিয়ে আর ভর্তি হওয়া যাবে না।

দারুল উলূম দেওবন্দ স্টুডেন্ট ভিসা পাবেন যেভাবে-

দারুল উলূম দেওবন্দে পড়াশোনা করতে ইচ্ছক যে কোনো বাংলাদেশিকে ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস থেকে নিতে হবে স্টাডি ভিসা। আগের মতো টুরিস্ট ভিসায় দেওবন্দ গিয়ে আর ভর্তি হওয়া যাবে না। দেওবন্দে পড়তে আগ্রহীদেরকে এনওসি (নো অবজেকশন সাটিফিকেট) দেবে দারুল উলূম দেওবন্দ। তবে এনওসি পেতে হলে শিক্ষার্থীর যেসব প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র পাঠাতে হবে। তা হলো-

– শিক্ষার্থীর বাবার নাম উল্লেখ করতে হবে।
– পত্রযোগাযোগের পূর্ণ ঠিকানা (বায়োডাটা) দিতে হবে।
– পাসপোর্টের ফটোকপি লাগবে।
– যে শ্রেণিতে ভর্তি হতে ইচ্ছুক তার বিবরণ পাঠাতে হবে।
– ৬ষ্ঠ, সপ্তম ও দাওরাহ বা অষ্টম শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করা যাবে।
– বাংলাদেশের যে মাদরাসায় পড়াশোনা করছে, সেখান থেকে নিতে হবে চারিত্রিক সনদপত্র।
– শিক্ষাগত যোগ্যতার সব সনদের ফটোকপি জমা দিতে হবে এবং ভর্তির সময় সনদের মূলকপি দেখাতে হবে।
– ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।
– স্টুডেন্ট ভিসা প্রাপ্তির প্রধান সাপোর্টিং ডকুমেন্ট ‘এনওসি’ করতে হবে।

দারুল উলম দেওবন্দের পড়াশোনার ভাষা উর্দু। এক্ষেত্রে যেসব শিক্ষার্থী পড়াশোনা চালানোর মতো উর্দু জানবেন, তারা অগ্রাধিকার পাবেন। দারুল উলূম দেওবন্দ বিনামূল্যে শিক্ষার্থীর শিক্ষা, থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করবে।

বিএম/রনী/রাজীব