সোনাগাজীর সেই মাদ্রাসার এডহক কমিটি গঠন

বিএম ডেস্ক : ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় গভর্নিং কমিটি বাতিল করা হয়েছিল কয়েকদিন আগে। এবার নতুন এডহক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটির মেয়াদ হবে ৬ মাস।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) নতুন কমিটি অনুমোদনের জন্য ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক পরে নতুন এডহক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এডহক কমিটির সভাপতি হলেন- ফেনীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুজন চৌধুরী, সদস্য সচিব মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইন, শিক্ষানুরাগী সদস্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নুরুল আমিন, শিক্ষক প্রতিনিধি মাও. শেখ ফরিদ ও দাতা সদস্য ডা. মোহাম্মদ শাহ আলম।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি। এ ঘটনার জের ধরে গত ৬ এপ্রিল সকালে মাদ্রাসায় আলিম পরীক্ষা কেন্দ্রে আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে গেলে ছাদে ডেকে নিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে লড়াই করে ১০ এপ্রিল মৃত্যুর করে কাছে হেরে যায় নুসরাত। এ ঘটনায় দেশজুড়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠে। পরদিন ১১ এপ্রিল বিকেলে তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এ ঘটনায় নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতপরিচয় আরো ৪-৫ জনকে আসামি করে গত ৮ এপ্রিল সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। ১০ এপ্রিল থেকে মামলাটির দায়িত্ব পায় পিবিআই। আলোচিত এই হত্যা মামলায় মোট ২০জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ৮ জন।

বিএম/রনী/রাজীব