পেনিনসুলায় ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজা


চট্টগ্রামের তারকা হোটেল পেনিনসুলায় ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজা শিরোনামে আয়োজিত ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের মেলায় ব্যাপক সাড়া পড়েছে।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) ছুটির দিন এই মেলায় রীতিমত উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এই মেলায় ঢাকা, চট্টগ্রামের পাশাপাশি দুবাই থেকেও নারী উদ্যোক্তারা অংশ নিয়েছেন। সাশ্রয়ী মুল্যে মেলা থেকে কেনা যাচ্ছে অত্যাধুনিক সব ডিজাইনের পোষাক, জুয়েলারী, কসমেটিকস সামগ্রীসহ নানা কিছু। মেলার টাইটেল স্পন্সর হিস্টোরি বাই ম্যানহুড।

ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজার অন্যতম আয়োজক লামোর ইভেন্টের কর্ণধার শাদ শাহরিয়ার জানান, পেনিনসুলার ডালিয়া হলে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এই মেলা শুরু হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফেয়ারের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ডাঃ মুনাল মাহবুব। এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন পেসিফিক জিন্স লিমিটেড এর হেড অব ডিজাইন এন্ড ডেভলপমেন্ট রুথমিলা ফরিদ, নার্গিস মেডি স্পা’র উদ্যোক্তা শবনম মৌ, বিশিষ্ট মেকআপ আর্টিস্ট আনিকা আনোয়ার এবং জেনিফার জুলি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মেলার আয়োজক লামোর ইভেন্টের কর্ণধার শাদ শাহরিয়ার, মেক-আপ শেক-আপ-এর উদ্যেক্তা ও এডমিন জুহি চৌধুরী, রিফাত ক্রিয়েশনের স্বত্ত্বাধিকারী রিফাত সুলতানা, সাফায়েত সাকি, সাইফ শোয়েব প্রমুখ।

মেলার শুরু থেকেই চট্টগ্রাম নগরীর সব বয়সী নারীদের আগ্রহের কেন্দ্রে রয়েছে তিন দিনের এই মেলা। শুক্রবার ছুটির দিন সকাল থেকেই মেলায় ভিড় করছে বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ ও তরুন-তরুনীরা। মেলায় সর্বমোট ৪৭টি স্টল রয়েছে। প্রতিটি স্টলেই ভিড় করছেন ক্রেতারা।

ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজার আয়োজক রিফাত ক্রিয়েশনের উদ্যোক্তা রিফাত সুলতানা এবং মেক-আপ শেক-আপের এডমিন জুহি চৌধুরী জানান, চট্টগ্রামে এই ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজার মাধ্যমে আমরা নারী উদ্যোক্তাদের কাজে উৎসাহ জাগানোর পাশাপাশি তাদের অর্থনৈতিকভাবে লাভবান করতে পারছি। বিপুল সংখ্যক ক্রেতা, বিক্রেতা, উদ্যোক্তা এই ফেয়ারের সাথে সম্পৃক্ত। ক্রেতারা এখান থেকে সাশ্রয়ী মুল্যে পোষাক জুয়েলারীসহ তাদের পছন্দের সামগ্রী কিনতে পারছেন। অপরদিকে নারী উদ্যোক্তারা যারা ঘরে বসে বা ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে নিজের পণ্য বিক্রি করেন তারা একই ছাদের নিজে শত শত ক্রেতা দর্শনার্থীদের সামনে তাদের পণ্য উপস্থাপন ও বিক্রয় করতে পারছেন। এতে সবার সাথেই একটি মেলবন্ধন সৃষ্টি হয়েছে।

ঈদ এক্সট্রাভ্যাগেনজার এমন সাফল্যের ধারাবাহিকতায় আগামীতেও এই ধরনের ফেয়ারের আয়োজন অব্যাহত থাকবে বলে আয়োজকরা জানান।