মাশরাফির পরিদর্শনের পর তিন চিকিৎসককে শোকজ

বিএম ডেস্ক : সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মর্তুজা নড়াইল সদর হাসপাতাল আকস্মিক পরিদর্শনের পর হাসপাতালের তিন চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকায় তাদেরকে শোকজ করা হয়েছে।

এ তিন চিকিৎসক হলেন সার্জন আকরাম হোসেন, কার্ডিওলজি বিশেষজ্ঞ (জুনিয়র) মোঃ শওকত আলী ও কার্ডিওলজি বিশেষজ্ঞ (জুনিয়র) কাজী মোঃ রবিউল আলম।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক জানান, যেসব চিকিৎসক সময়মতো হাসপাতালে আসেন না তাদের বিরুদ্ধেও পর্যায়ক্রমে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানা গেছে, নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফি বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে এক অনুষ্ঠান শেষে আকস্মিকভাবে সদর হাসপাতাল পরিদর্শনে যান। এসময় কর্তব্যরত ৩ চিকিৎসকের হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর না দেখে তিনি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো: আব্দুস শাকুর এবং পরে অনুপস্থিত সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. আকরাম হোসেনের সাথে মুঠোফোনে কথা বলেন এবং বিভিন্ন ওয়ার্ডে রোগীদের সাথে কথা বলে তাদের কাছ থেকে নানা ধরনের সমস্যা শোনেন।

তিনি এ সময় হাসপাতালের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার চিত্র দেখতে পান। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে হাসপাতালের কর্মকর্তাদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে এ সভায় জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, পুলিশ সুপার মোঃ জসিম উদ্দিন পিপিএম, সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোঃ আব্দুস শাকুর, সিভিল সার্জন ডা. আসাদ-উজ-জামান মুন্সি, হাসপাতালের আর.এম.ও ডা. মশিউর রহমান বাবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মাশরাফি-বিন মর্তুজা বেশ কিছু বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

সদর হাসপাতালের নবনিযুক্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোঃ আব্দুস শাকুর চিকিৎসকরা দায়িত্বে অবহেলা করছেন স্বীকার করে বলেন, বৃহস্পতিবার অনুপস্থিত তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এবং উর্ধ্ব তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে শোকজ লেটার দেয়া হয়েছে এবং তাদের ৩ কর্ম দিবসের মধ্যে লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া যেসব চিকিৎসক ছুটি ছাড়া অনুপস্থিত রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

মাশরাফি আকস্মিক হাসপাতাল পরিদর্শনের বিষয়টি ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে।

বিএম/রনী/রাজীব