হাটহাজারীতে ব্রীজের নিচে তেলবাহী ওয়াগন

চট্টগ্রাম মেইল : চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ১১ মাইল এলাকায় লাইনচ্যুত হয়ে ব্রীজের নিচে খালে পড়ে গেছে ফার্নেস অয়েল বহনকারী ট্রেনের তিনটি ওয়াগন। আজ সোমবার দুপুর আড়াইটার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে। তিনটি ওয়াগনের একটি থেকে তেল ছড়িয়ে খালের পানি ও আশে পাশের এলাকায় মিশে যায়।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রুহল আমিন। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয়দের সাথে নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে ১০টি পয়েন্টে বাঁধ নির্মাণে কাজ করছে যাতে ওয়াগন থেকে ছড়িয়ে পড়া তেল হালদা নদীতে প্রবেশ করতে না পারে।

তিনি বাংলাদেশ মেইলকে বলেন, ৭টি ওয়াগনে প্রায় ১৮০ টন ফার্নেস অয়েল নিয়ে নগরীর বটতলী থেকে হাটহাজারীর একশ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্টে যাচ্ছিল। গন্তব্যের কাছাকাছি চেনখালী খালের ব্রীজে এসে লাইনচ্যুত হয়ে তিনটি ওয়াগন ব্রীজের নিচে খালে পড়ে যায়। এর মধ্যে একটি ওয়াগন থেকে তেল ছড়িয়ে চেইন খাল হয়ে হালদায় প্রবেশ করার উপক্রম হলে স্থানীয়দের নিয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে বাধ নির্মাণের ব্যবস্থা করা হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে হালদা নদী বিশেষজ্ঞরা। তারা জানিয়েছেন এ তেল যদি হালদা নদীতে মিশে তবে বিশাল ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রেলওয়ের উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা করছে জানালেন রেলওয়ে কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন। বলেন, জরুরি ভিত্তিতে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছেছে। চট্টগ্রাম থেকে একটি এবং লাকসাম থেকেএকটি রিলিফ ট্রেন উদ্ধারকাজে যোগ দিতে রওনা হয়েছে। লাইনচ্যুত হয়ে ব্রীজের নিচে পড়ে যাওয়া তিনটি ওয়াগনের দুটিতে তেমন ক্ষতিগ্রস্থ হয়নি উল্লেখ করে রেলওয়ের এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন খালে পড়ে যাওয়া ওয়াগন উদ্ধারে কমপক্ষে তিনদিন সময় লাগতে পারে।

বিএম/রাজীব…