পাঁচ বছর পর আইএস নেতা বাগদাদির ভিডিও প্রকাশ

জীবিত না মৃত, এই দন্ধে কেটে গিয়েছেল কয়েকটি বছর। অবশেষে নতুন ভিডিওয়ে পাঁচ বছর পরে ধরা দিল আইএস শীর্ষ জঙ্গি নেতা আবু বকর আল বাগদাদি। একটি প্রচারমূলক ভিডিওয়ে বাগদাদিকে দিব্যি সুস্থ সবল হয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছে। সিরিয়ার শহর বাঘুজ-এ আইএসের হারের কথা স্বীকার করেছে সে।

এর আগে সর্বশেষ ২০১৪ সালে ইরাকের মসুল থেকে ইরাক ও সিরিয়ার কিছু অংশজুড়ে খেলাফত ঘোষণা করে তার ভিডিও প্রকাশ পেয়েছিল।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) আইএসের আল-ফুরকান মিডিয়া ১৮ মিনিটের এ ভিডিওটি প্রকাশ করে। এতে জঙ্গি গোষ্ঠীটির আওতাধীন বিভিন্ন অঞ্চল হারানোর প্রতিশোধ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি করেন আবু বকর আল-বাগদাদি।

পূর্ব সিরিয়ার শক্ত ঘাঁটি থেকে আইএসকে উতখাত করা সম্ভব হয়েছে। বলা যায়, আইএস মুক্ত হয়েছে সিরিয়া। এর কয়েকদিনের মধ্যেই বাগদাদির ভিডিও সামনে এল।

প্রকাশিত ভিডিওতে আল-বাগদাদি বলেন, ‘বাঘুজের যুদ্ধ শেষ হয়ে গেলেও এখনো আরও অনেক কিছু বাকি আছে।’ ভিডিওটিতে আল-বাগদাদি সিরিয়ার বাঘুজে আইএসের পরাজয় স্বীকার করে নিয়েই প্রতিশোধের হুমকি দেন তিনি।

একটি অত্যাধুনিক কালাশনিকভ পাশে রেখে সে কথা বলেছে। সে বলেছে, খ্রিস্টানদের বিরুদ্ধে ইসলামের এ এক দীর্ঘ লড়াই। বাঘুজের লড়াইয়ে পরাস্ত হলেও মুসলমানদের প্রতি খ্রিস্টানদের হিংস্রতা ও কুমতলব সকলের চোখে ধরা পড়েনি।

গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি অডিও বাগদাদি প্রকাশ করেছে। তবে আইএস জঙ্গিদের মনোবল বাড়াতেই সম্ভবত এতদিন পর সে ভিডিওয়ে ধরা দিল।

অন্তত এটা স্পষ্ট হয়ে গেল যে বাগদাদি জীবিত রয়েছে, কোনও হামলা বা অসুস্থতা তাকে শেষ করতে পারেনি।

যদিও সিরীয় ও পশ্চিমী গোয়েন্দারা মনে করছেন, গত বছর থেকেই বাগদাদির প্রভাব কমে গিয়েছে। কারণ কুর্দিশ ও মার্কিন বিমান হামলায় আইএস পরাস্ত হয়েছে। ফলে বাগদাদি আগের চেয়ে গুরুত্ব হারিয়েছে।

বিএম/রনী/রাজীব