হজ ফ্লাইট শুরু ৪ জুলাই থেকে

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চলতি বছরের হজ ফ্লাইট শুরু হচ্ছে ৪ জুলাই। এ বছর ১৫৭টি নির্ধারিত ও ৩২টি নিয়মিত ফ্লাইটের মাধ্যমে ৬৩ হাজার ছয়শ হজযাত্রী পরিবহন করবে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এ সংস্থা। হজ মৌসুমে নিয়মিত ফ্লাইট ঠিক রাখতে স্বল্প মেয়াদে দুটি উড়োজাহাজ ভাড়া করার চেষ্টা চলছে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এ বছর হজ হতে পারে ১০ অগাস্ট। হজে যেতে বাংলাদেশ থেকে নিবন্ধন করেছেন এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী মোট যাত্রীর অর্ধেক অর্থাৎ ৬৩ হাজার পাঁচশ ৯৯ যাত্রী বহন করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

ঢাকা ছাড়াও এ বছর চট্টগ্রাম থেকে ১৭টি ও সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। সৌদি আরবের জেদ্দা ছাড়াও ঢাকা থেকে মদিনায় ১১টি ও চট্টগ্রাম থেকে মদিনায় ৭টি ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে সংস্থার।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বলেন, ৪ঠা জুলাই ২০১৯ প্রথম হজ ফ্লাইট পরিচালিত হবে, এটা প্রি হজ ফ্লাইট। এবং সর্বশেষ প্রি হজ ফ্লাইট পরিচালিত হবে ৫ অগাস্ট ২০১৯। এবছর আমরা মোট ১৫৭ টি ডেডিকেটেড হজ ফ্লাইট এবং ৩২টি সিডিউল ফ্লাইটে সর্বমোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবো।

এবার হজ ফ্লাইটের জন্য নিয়মিত সূচিতে কোনো পরিবর্তন আনতে চায় না বিমান। সূচি ঠিক রাখতে এজন্য খোঁজা হচ্ছে দুটি সুপরিসর উড়োজাহাজ।

শাকিল মেরাজ আরো বলেন, এই এয়ারক্রাফট লিজে নেয়ার ক্ষেত্রে আমাদের যে প্রক্রিয়াগুলো করা দরকার যেমন টেন্ডার কিংবা আরএফপি করে যেগুলো নেয়ার বিষয় সেগুলো চলছে। আমরা আশা করছি এবছর হজের সময় আমাদের বহরে অতিরিক্ত দুটি জাহাজ পাবো শুধু হজকে সাপোর্ট দেয়ার জন্য।

তবে স্বল্প মেয়াদে উড়োজাহাজ ভাড়া না করে বহর সম্প্রসারণের তাগিদ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এভিয়েশন বিশেষজ্ঞ এটিএম নজরুল ইসলাম বলেন, বিমান যেটা করে ওয়েট লিজ নেয়, এবং দীর্ঘমেয়াদে ওয়েট লিজে চলে যেতে বাধ্য হয় বিকজ অব দ্যা কন্ডিশনস এন্ড আদারস। এটা যেন না করে। প্রয়োজন হলে বিমান নিজেই দুতিনটি এয়ারক্রাফট কিনে রাখতে পারে। এতে তাদের সিডিউল জটিলতা হবে না প্লাস হজের সময় তারা খুব সুন্দর ভাবে হজ ফ্লাইটগুলো পরিচালনা করতে পারবে।

এ বছরেই প্রথম হজাযাত্রীদের সৌদি ইমিগ্রেশন হচ্ছে ঢাকায়। এ কারনে ফ্লাইটের একদিন আগে যাত্রীর সমস্ত তথ্য বিমানের কাছে জমা দেবে এজেন্টরা। আর টিকেট কেটে যাত্রা বাতিল করলে গুনতে হবে আড়াইশ ডলার জরিমানা।

বিমানের হজ ফ্লাইট: মোট নিবন্ধন: ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮,বিমানের যাত্রী ৬৩ হাজার ৫৯৯।

হজ ফ্লাইট শুরু ৪ জুলাই-৫ আগস্ট এবং ফিরতি ফ্লাইট ১৭ আগস্ট-১৪ সেপ্টেম্বর। নির্ধারিত ফ্লাইটে ১৫৭। নিয়মিত ফ্লাইট ৩২। চট্টগ্রাম থেকে ১৭টি। সিলেট থেকে ৩টি। ঢাকা-মদিনা ফ্লাইট ১১টি, চট্টগ্রাম-মদিনা ফ্লাইট ৭।

বিএম/রনী/রাজীব