শার্শায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষকসহ গ্রেফতার ৪

যশোরের শার্শা উপজেলায় মাদরাসাছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যসহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে শার্শা থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- শার্শার সাতমাইল মহিলা হালিম মাদরাসার সহকারী শিক্ষক শরিফুল ইসলাম, প্রিন্সিপাল মহাসিন আলী, মাদরাসার কেরানি জামাল উদ্দীন ও স্থানীয় চিকিৎসক নূর ইসলাম।

পুলিশ ও ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন সময় সহকারী শিক্ষক শরিফুল ওই ছাত্রীকে নিপীড়ন করতো। মেয়েটি এ নিয়ে স্কুলের প্রিন্সিপালের কাছে অভিযোগ দেয়। কিন্তু তিনি বিচার না করে কয়েকজন মিলে বিষয়টি মিটিয়ে ফেলতে ছাত্রীর অবিভাবকদের চাপ দেয়। অর্থের প্রলোভনও দেখায়। পরে পুলিশকে অভিযোগ দেয় ওই মেয়ের পরিবার। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা করা হয়েছে। তাদের যশোর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

বিএম/রনী/রাজীব