দখলদারদের কোন ছাড় নেই: নৌ প্রতিমন্ত্রী

সরকারি জায়গার দখলদারদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

শুক্রবার বিকেলে দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার উন্নয়নের বাংলাদেশে দখলদারদের দিন শেষ। সব দখলদারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এক্ষেত্রে কোন ছাড় নেই।

স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নিজের অজান্তে নদীর জায়গা যাদের নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে, সেই সকল জায়গা ছেড়ে দিন। বর্তমান সরকার এ জায়গায় অত্যন্ত কঠোর। দখলকৃত জায়গা কেউ নিজের মধ্যে রাখতে পারবেন না।

স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, দু’চারজন দখলদারদের জন্য এলাকার সাধারণ মানুষ যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, এলাকায় যেন কোন ধর্মীয় সম্প্রতি বিনষ্ট না হয়। এলাকায় যেন কোন সংঘাত সৃষ্টি না হয়। শ্মশান দখল, কবরস্থান দখল, মন্দিরের জমি দখল, মসজিদের জমি দখল এগুলো বন্ধ করতে হবে, এটা বন্ধের জন্য একটা সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। যারা এই ধরনের কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত তাদেরকে চিহ্নিত করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, মন্ত্রিসভা গঠনের পর সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল ঢাকার আশেপাশের চারটি নদী দখলমুক্ত করা। ঢাকার আশেপাশে চারটি নদী দখলমুক্ত করার জন্য যে অভিযান চলছে, তা চলবেই। নদী দখলমুক্ত করতে সরকার পিছপা হবে না। যত বড় ক্ষমতাবান ব্যক্তি হোক না কেন! নদী দখলমুক্ত করা হবেই। এখান থেকে পিছপা হওযার কোনো সুযোগ নেই। কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর চেয়ে সরকার বা রাষ্ট্র ছোট হতে পারে না। রাষ্ট্র অনেক বড় শক্তিশালী। সরকারের সিদ্ধান্ত কেউ দমিয়ে রাখতে পারবেনা।

বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফখরুল হাসানের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সৈয়দ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আফসার আলী, দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুতের জিএম হরিপদ বর্মন ও উপজেলা বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাগণ।

বিএম/রনী/রাজীব