আ.লীগ নেতার জামাতা ও ছেলের গোডাউন মিলল টিসিবির পণ্য

রংপুরে আওয়ামী লীগ নেতার জামাতা ও ছেলের গোডাউন থেকে টিসিবির এক ট্রাক পণ্য উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ মূল আসামী জামাইকে গ্রেপ্তার করেছে।

সোমবার ভোরে নগরীর নব্দীগঞ্জ এলাকা থেকে আরপিএমপির মাহিগঞ্জ থানা পুলিশ এসব উদ্ধার ও মূল আসামীকে গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় ডিলারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। সংশ্লিষ্ট ডিলারের লাইসেন্স বাতিলের প্রক্রিয়া চলছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, কল্যাণী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহরাব হাজীর জামাতা রুহুল আমিন ও ছেলে রফিক উদ্দিন বিভিন্ন পণ্য মজুদের ব্যবসা করতো। নব্দীগঞ্জ এলাকায় তাদের একটি গোডাউন রয়েছে। সোমবার সকালে তাদের গোডাউনে পুলিশ হানা দেয়। গোডাউন থেকে টিসিবির ৭৯৬ লিটার সয়াবিন তেল, চিনি ৫০০ কেজি, ছোলা ৪০০ কেজি ও ৩০০ কেজি মুশুরের ডাল উদ্ধার করে। মালামালগুলো ট্রাকে করে পাচার করার প্রক্রিয়া চলছিল। উক্ত মালামালগুলো ছিল টিসিবির ডিলার সোহেল মিয়ার। তারা যোগসাজস করে টিসিবির পণ্য মজুদ করে তা বাজারে বেশি দামে বিক্রি করতো।

মাহিগঞ্জ থানার ওসি আখতারুজ্জামান প্রধান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নব্দীগঞ্জের অভিযান চালিয়ে এই টিসিবির খাদ্যপণ্যগুলো ট্রাকসহ আটক করেছি। আমরা মূল আসামী সোহরাব হাজীর জামাতা রুহুল আমিনকে গ্রেপ্তার করেছি। এ ঘটনায় ডিলার সোহেল, রুহুল আমিন ও রফিক উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে টিসিবির রংপুর আঞ্চলিক কর্মকর্তা সুজাউদ্দৌ সরকার বলেন, মামলার কপি হাতে পেলে সংশ্লিষ্ট ডিলারের লাইসেন্স বাতিল করা হবে। এছাড়া টিসিবির পণ্য যাতে কেউ মজুদদারি করতে না পারে এ জন্য কঠোর মনিটরিং করা হচ্ছে।