ট্রেনে দুর্বৃত্তের ছোড়া পাথরে আহত শিশু ইশানের জ্ঞান এখনো ফিরেনি

বিএম ডেস্ক : ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী পদ্মা আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনে দুবৃত্তের ছোড়া পাথর নিক্ষেপে গুরুতর আহত শিশু ইশান (৮) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। তার বাবার নাম আবদুস সালাম।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার খন্দকার শহীদুল ইসলাম জানান, রোববার রাত ১১টা ১০ মিনিটে ঢাকার কমলাপুর স্টেশন থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ছাড়ে।

জানালা ভেঙ্গে মাথায় লাগে পাথর

রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে সিরাজগঞ্জের শহীদ মনসুর আলী ও জামতৈল স্টেশনের মাঝামাঝি ট্রেনের বগি লক্ষ্য করে দুর্বৃত্তরা পাথর ছুড়ে মারে।

এতে বাবা-মায়ের সঙ্গে ট্রেনে থাকা শিশু ইশান মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। ট্রেনটি ভোর সাড়ে ৫টায় রাজশাহী পৌঁছলে ইশানকে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩০নং নিউরো সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

গুরুতর জখম ইশানের চিকিৎসা সেখানেই চলছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছে ইশান। এখনও তার জ্ঞান ফিরেনি।

রাজশাহী রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার আমজাদ হোসেন জানান, ঢাকা-রাজশাহী-ঢাকা রুটে ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের ঘটনা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গেছে। ফলে মাঝে মাঝে যাত্রীরা আহত হচ্ছেন। এ ব্যাপারে রেলওয়ের পক্ষ থেকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত নোবিপ্রবি ছাত্র দূর্জয়

এর আগে গত বৃহস্পতিবার চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের ঘটনায় নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। আহত ওই শিক্ষার্থীর নাম সরদার মাহমুদুল হাসান দূর্জয়। তিনি নোবিপ্রবির বাংলা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাসা ময়মনসিংহের গফরগাঁও।

দূর্জয়ের বন্ধুরা জানান, রাত ৮টার দিকে বন্ধুদের সঙ্গে নোয়াখালী রেলওয়ে স্টেশন থেকে নোয়াখালী এক্সপ্রেসযোগে টঙ্গীর উদ্দেশে রওনা দেন দূর্জয়। ট্রেনটি নরসিংদীর জিনারদী রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছানোর পূর্ব মুহূর্তে রাত ৪টার দিকে একদল যুবক এলোপাতাড়ি পাথর নিক্ষেপ শুরু করে।

এ সময় দূর্জয় জানালার পাশে থাকায় তার মাথায় একটি পাথর এসে লাগে। পাথরের আঘাতে অজ্ঞান  হয়ে পড়েন তিনি। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয় তাঁর। আশপাশে কোনো হাসপাতাল না থাকায় তাকে হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হয়ে ওঠেনি। পরে টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশনে গিয়ে এক ফার্মেসিতে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন তিনি। অবস্থার অবনতি হওয়ায় সকাল ৯টায় দূর্জয়কে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান তার সহপাঠী হৃদয়।

বিএম/রণী/রাজীব..