দেশের ভাগ্য উন্নয়নে সরকার নানা ইশতেহার ঘোষণা করেছে-নওফেল

চট্টগ্রাম মেইল : প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রত্যেক জেলা-উপজেলায় সাংগঠনিক কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তিনি বলেন, সরকার দেশের ভাগ্য উন্নয়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন ইশতেহার ঘোষণা করেছে। সরকারের এসব ইশতেহার বাস্তবায়নে দলের মাঝে সমন্বয় প্রয়োজন। তাই দলের ভেতর বিবেদ সৃষ্টি না করে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের জেলা উপজেলার সকল নেতা কর্মীকে সরকারের তৃতীয় মেয়াদে ঘোষিত সকল ইশতেহার বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

কোনো অনুপ্রেবশকারী যাতে দলের ভেতর প্রবেশ করতে না পারে সেদিকে সতর্ক  দৃষ্টি ও চোখ কান খোলা রাখার পরামর্শ  দিয়ে শিক্ষা উপ মন্ত্রী নওফেল বলেন, প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রকৃত নেতা কর্মীদের খোজ খবর নেওয়া হচ্ছে, প্রত্যেকের ডাটা বেইজ তৈরি করা হবে। যাতে করে কোন ত্যাগী নেতাকর্মীর অবমূল্যায়ন না হয় এবং কোন নেতা কর্মী যাতে দলের ভেতর বিশৃঙ্খলতা সৃষ্টি করে বিবেধ তৈরি না করে সেদিকটাই ভাল ভাবে খোঁজ নেয়া হচ্ছে।

আজ ১১ মে দুপুরে নগরীর কাজীর দেউড়ি ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর জেলা, দক্ষিণ জেলা, কক্সবাজার, বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়কারী ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্য আবদুল মতিন খসরু। আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য মাহাবুবুল আলম হানিফের সভাপতিত্বে আয়োজিত বর্ধিত সভায় তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, সমন্বয়ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বক্তব্য রাখেন।

এ সভায় চট্টগ্রাম বিভাগের সাত সাংগঠনিক জেলা চট্টগ্রামের ১৬ সাংসদ, দুটি সংরক্ষিত আসনের সাংসদসহ ৭ সাংগঠনিক জেলার নেতাকর্মীরা সভায় অংশ নেন।

বিএম/রাজীব..